করোনো ভাইরাসের জের, অ্য়াকাডেমিক সেশন স্থগিত রাখল খড়্গপুর আইআইটি ৷ ছাত্রছাত্রীদের রুমের মধ্যেই অনলাইন পদ্ধতিতে পঠনপাঠন চালানোর পরামর্শ দেওয়া হয়েছে নোটিস জারি করে ৷ খড়্গপুর আইআইটি-র ডিরেক্টর অধ্যাপক ভি কে তিওয়ারি বৃহস্পতিবার রাতে নোটিস জারি করেছেন ৷ অন্যান্য সোশ্য়াল সাইট  সহ ফেসবুক দ্বারাও এ বিষয়ে সকলকে জানিয়েছেন তিনি। আগামী ১৬ মার্চ খড়্গপুর আইআইটিতে একটি অ্যাকাডেমি অফ ক্লাসিক্যাল অ্যান্ড ফোক আর্টস বিভাগের উদ্বোধন অনুষ্ঠান ছিল ৷ সেটিও আপাতত বাতিল করা হয়েছে ৷ 

ডিরেক্টর  ভি কে তিওয়ারি জানিয়েছেন,২০২০ সালের ৩১ শে মার্চ পর্যন্ত করোনা ভাইরাস রোগের সমস্যা এড়াতে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে আইআইটি খড়গপুর অ্যাকাডেমিক কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে। ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থী ও বাসিন্দাদের ক্যাম্পাসের বাইরে ভ্রমণ না করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। ক্যাম্পাসের বাইরের শিক্ষার্থীদের বাড়িতে থাকার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নিরাপত্তা কর্মীরা ক্যাম্পাসে প্রবেশ নিয়ন্ত্রণ করবেন। 

শিক্ষার্থীরা শ্রেণিকক্ষের কোর্সগুলির জন্য অনলাইন সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন। আগামী দিনের কোর্স পরবর্তী বিজ্ঞপ্তি জারি না হওয়া পর্যন্ত স্থগিত থাকবে। এই সময়ের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করতে এবং পরিস্থিতি মোকাবিলা করার জন্য এনসিওভি / সিভিআইডি অ্যাডভাইসরি জারি করা হয়েছে। করোনা থেকে বাঁচতে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানে সচেতনতামূলক প্রচার বোর্ড প্রদর্শিত হয়েছে। 

এখানেই শেষ নয়। আইআইটি ক্যাম্পাসের  স্কুলগুলিতেও অ্য়াকাডেমিক কার্যক্রমও আপাতত স্থগিত থাকবে। তবে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা সময়সূচি অনুসারে অনুষ্ঠিত হবে। একসঙ্গে বসে একে অপরকে ছোঁয়া বা জটলা এড়াতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে শিক্ষার্থীদের ৷  বৃহত্তর জনসমাবেশও এই সময়ের মধ্যে স্থগিত থাকবে। সমস্ত সেমিনার, সম্মেলন এবং কর্মশালা পরবর্তী বিজ্ঞপ্তি পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে।

উল্লেখ্য,সামনের ১৬ মার্চ খড়্গপুর আইআইটিতে ক্লাসিক্যাল অ্য়ান্ড ফোক আর্টস বিভাগের উদ্বোধন কর্মসূচি ছিল ৷ যেখানে উপস্থিত থাকার কথা ছিল পদ্মভূষণ অজয় চক্রবর্তীর ৷  সমস্ত আয়োজন তৈরি থাকলেও শেষ মুহূর্তে শুক্রবার রাতে  তা স্থগিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে আইআইটি কর্তৃপক্ষ ৷