সঞ্জীব কুমার দুবে, পূর্ব মেদিনীপুর-গভীর রাতে মৎসবন্দরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড। আগুনে ভস্মীভূত হয় প্রায় ৯টি দোকান। শনিবার রাতে আগুন দেখতে পেয়ে প্রথমে আগুন লাগানোর চেষ্টা করেন মৎসজীবীরা। পরে ঘটনাস্থলে দমকলের ২টি ইঞ্জিন পৌঁছে পরিস্থিতির সামাল দেয়।

জানাগেছে, শনিবার গভীর রাতে দিঘা মৎসবন্দরে মোহনাবাজারের ভিতর আগুন দেখতে পান মৎসজীবীরা। প্রথমে তাঁরা বালতি দিয়ে জল এনে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দমকলের ২টি ইঞ্জিন। ঘটনায় কেউ হতাহত না হলেও লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন মৎসজীবীরা।

দিঘা ফিশ এন্ড ফিশারম্যান ট্রেডার্স অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক শ্যামসুন্দর দাস বলেন, ''প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে মৎসবন্দরের একটি খাবারের দোকান থেকে আগুন লাগে। আগুনের তীব্রতা এতটাই বেশি ছিল যে মূহূর্তের মধ্য়ে আগুন ছড়িয়ে পডডে আশেপাশের দোকানগুলিতে। দমকল খুব দ্রুত আগুন নেভানোর চেষ্টা করে''।

পূর্ব ভারতের বৃহত্তম মৎসবন্দর হল এই মোহনা বন্দর। সেখানে আচমকা আগুন লেগে যাওয়ায় প্রচুর টাকার ক্ষতির আশঙ্কা করছেন মৎসজীবীরা। যদিও আগুন লাগার সঠিক কারন এখনও জানা যায়নি। অগ্নিকাণ্ডের তদন্ত করছে দমকল ও মোহনা থানার পুলিশ।