রাজ্যের অন্যান্য বিদ্যালয়গুলির সঙ্গে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা জুড়ে সরকারি বিদ্যালয়গুলিতে মিড ডে মিল-এর চাল ও আলু বিলির প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে পুনরায়। তার আগে করোনা আবহে থাকা বিদ্যালয়গুলিকে জীবাণুমুক্তকরণ শুরু করল প্রশাসন।

রাজ্য প্রশাসনের নির্দেশে, শিক্ষা দপ্তরের পক্ষ থেকে দেওয়া ফরমান অনুসারে,১ জুন থেকে ৬ জুন পর্যন্ত পড়ুয়াদের মিড ডে মিলের চাল আলু দেওয়া হবে। এবার মিড ডে মিলে দু কেজি চাল দু কেজি আলু দেওয়া হবে প্রতি ছাত্র-ছাত্রী পিছু। তাই ২৮ মে থেকে বিদ্যালয়গুলির জীবাণুমুক্তকরণ এর উদ্যোগ শুরু হয়েছে। 

অন্যান্য এলাকার সঙ্গে মেদিনীপুরের পৌরসভার অন্তর্গত বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয় ও অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র গুলিতে জীবাণুমুক্তকরণ এ রাসায়নিক স্প্রে শুরু হয়েছে।১ জুনের আগেই সেই কাজ সম্পন্ন হবে বলে কর্মীরা জানিয়েছেন। মেদিনীপুর সদর মহকুমা শাসক দীননারায়ন ঘোষ জানিয়েছেন-" চাল আলু বিলি করার আগে জীবাণুমুক্তকরণ শুরু হয়েছে সমস্ত বিদ্যালয়ে। শিক্ষক ও সকলের নিরাপত্তার স্বার্থে এই উদ্যোগ।"

অন্যান্যবারের মতো এবারও বিদ্যালয়গুলিতে ছাত্র-ছাত্রীরা যাতে না উপস্থিত হয় সে বিষয়ে কড়া নির্দেশ দেওয়া হয়েছে শিক্ষা দপ্তরের পক্ষ থেকে। ২৮ জুন থেকেই অভিভাবকদের কাছে খবর দিয়ে দেওয়া হয়েছে বিদ্যালয়গুলির পক্ষ থেকে। বিদ্যালয়ের দেওয়া নির্দিষ্ট দিনে ৬ জুনের মধ্যে চাল ও আলু সংগ্রহ করবেন অভিভাবকেরা।