Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Pakistan: প্রকাশ্য রাস্তায় বিবস্ত্র করে বেধড়ক মার, ফের মানবতা লুন্ঠিত ইমরানের পাকিস্তানে

শিয়ালকোটের (Sialkot) গণহিংসার ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই ফের মানবতা আক্রান্ত পাকিস্তানে। এবার ফয়সলাবাদে (Faisalabad) চুরির দায়ে প্রকাশ্যে বিবস্ত্র করে মার ৪ মহিলাকে।
 

4 women stripped and beaten in Faisalabad, Video goes viral ALB
Author
Kolkata, First Published Dec 8, 2021, 10:37 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

ধর্মের নামে গণপিটুনিতে নিহত শ্রীলঙ্কার (Sri Lanka) নাগরিক প্রিয়ন্ত কুমারার (Priyantha Kumara) জন্য আয়োজিত এক শোক সভায় যখন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান (Imran Khan) বলছেন গণহিংসা সহ্য করা হবে না, ঠিক সেই সময়ই পাকিস্তানের আরেক জায়গায়, প্রকাশ্যে জনতার নির্মম নির্যাতনের শিকার হলেন চার মহিলা। মাঝ রাস্তায় বেধড়ক মারা তো হয়ই, এমনকী পরণের কাপড়-চোপড়ও খুলে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ। এই ঘটনার বেশ কয়েকটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। 

ঘটনাটি ঘটেছে পাকিস্তানের ফয়সলাবাদে (Faisalabad) । ইন্টারনেটে যে ভিডিওগুলি ছড়িয়ে পড়েছে, তা প্রকাশ করার মতো নয়। সেখানে, চারজন মহিলাকে একটি দোকানে আটকে রেখে, তাদের জোর করে বিবস্ত্র করে লাঠি দিয়ে মারধর করতে দেখা গিয়েছে। পুরো ঘটনাটা ঘটেছে একটি জনবহুল এলাকায় এবং সেখানে বহু মানুষ উপস্থিত ছিলেন। কেউ একবারের জন্যও ওই ঘটনার প্রতিবাদ পর্যন্ত করেনি। প্রকাশ্য রাস্তায় যখন চার মহিলার ইজ্জত লুন্ঠন করা হচ্ছে, তখন সেখানে কোথাও খুঁজে পাওয়া যায়নি    ইমরানের পুলিশকে (Pakistani Police)। হামলাকারীদের দাবি, ওই মহিলারা চুরি করতে গিয়ে ধরা পড়েন। তাই, তাদের বিবস্ত্র করে লাঠিপেটা করা হয়েছে। 

তবে, চোর-ডাকাত হলেও, কোনও মানুষের সঙ্গে এরকম আচরণ কোনও সভ্য সমাজে করা যায় না। শিয়ালকোটের (Sialkot) ভয়াবহ হিংসার ঘটনার পর, ফয়সলাবাদের এই ঘটনা ফের একবার পাক সরকারের বিরুদ্ধে আম জনতার ক্ষোভ উসকে দিয়েছে। পাক-পঞ্জাবের পুলিশ পরে অভিযুক্ত পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে, এই ঘটনার পর, ইমরান সমর্থকরা আবার সোশ্যাল মিডিয়ায় অন্য একটি ভিডিও প্রকাশ করে প্রমাণ করার আপ্রাণ চেষ্টা করে চলেছে, ওই মহিলারা নিজেরাই পোশাক খুলে ফেলেছিলেন। তবে, ভিডিওতে স্পষ্ট তাদের পোশাক খোলার জন্য হুমকি দিতে শোনা গিয়েছে। এই নিয়ে ইমরান সরকারের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছে পাক জনতা। তাদের অভিযোগ, দেশে কোনও সরকার আছে কি নেই, তাই বোঝা যাচ্ছে না। 

ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিও - 

ফয়সলাবাদের যখন এই ঘটনা ঘটছে এই একই সময়ে, প্রিয়ন্ত কুমারার শোকসভায় অংশ নিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, তাঁর সরকার ধর্মের নামে গণহিংসা সহ্য করবে না। দোষীদের কাউকে ছাড়া হবে না। পাকিস্তানই একমাত্র দেশ যা ইসলামের নামে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। শিয়ালকোটের মতো ঘটনা এই দেশের জন্য লজ্জার। দেশের প্রত্যেকের হজরত মহম্মদের জীবনী অধ্যয়ন করা উচিত। তিনি আরও জানান, শিয়ালকোটের ব্যবসায়ী সম্প্রদায় ওই মৃত শ্রীলঙ্কান নাগরিকের পরিবারের জন্য ১ লক্ষ মার্কিন ডলার অর্থ সংগ্রহ করেছে। পাক সরকারের পক্ষ থেকেও প্রিয়ন্ত কুমারার পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেওয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি। গত সপ্তাহে পাক পঞ্জাবেরই শিয়ালকোটে ইসলামের অবমাননা করার অভিযোগ করে, ওই শ্রীলঙ্কার নাগরিককে পিটিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছিল জনতা। প্রকাশ্য রাস্তাতেই তাঁর নিথর দেহে আগুনে পুড়িয়েও দেওয়া হয়েছিল।
 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios