পাকিস্তানের কয়েকজন মন্ত্রী আছেন, যাঁরা মুখ খুললেই হাসির কারণ হন। সে দারুণ যত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ই হোক না কেন। যেমন দিন কয়েক আগে তেজগাম এক্সপ্রেসে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ঘটে কত মানুষের প্রাণ গেল। কিন্তু, তাই নিয়ে সেই দেশের রেলমন্ত্রী এমন ব্যাখ্যা দিলেন যে বিস্ময়ে নেট দুনিয়ার সকলের হা-মুখ বন্ধই হচ্ছে না।

সম্প্রতি পাক সাংবাদিক নাইলা ইনায়ত পাক রেলমন্ত্রীর একটি ভিডিও ক্লিপ সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন। ১৪ সেকেন্ডের সেই ভিডিও ক্লিপে দেখা যাচ্ছে, পাক রেলমন্ত্রী বলছেন, তেজগাম এক্সপ্রেসের ভিতর নাস্তায় (জলখাবারে) আগুন ধরে গিয়েছিল। তাতেই নাস্তা ফেটে যায়। তার থেকে সিলিন্ডার আর চুল্লি দুটোই ফেটে গিয়েছিল।

স্বাভাবিকভাবেই পাক রেলমন্ত্রী শেখ রশিদের এই নবতম বাচনের ভিডিও নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। প্রায় সকলেরই প্রথম প্রতিক্রিয়া, উনি কী বলতে চাইছেন? কেউ কেউ বলছেন, উনি নতুন ধরণের জলখাবার আবিষ্কার করে ফেলেছেন, বিস্ফোরক জলখাবার। কেউ কেউ আবার বলছেন, পাকিস্তানে ভাই সবই ফাটতে পারে। একজন বলছেন ছিল রুটি, হয়ে গেল বোমা। কেউ বলছেন ডিমের মধ্যে ছিল বোমা। আর একজন বলেছেন এই কথার মানে একমাত্র ইমরান খানই বুঝবেন।  

এর আগএ এক সভায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সমালোচনা করতে গিয়ে মাইক থেকে ইলেকট্রিক শক খেয়েছিলেন শেখ রশিদ। সেই ভিডিও ক্লিপও নেটদুনিয়ায় ভািরাল হয়েছিল। হয়েছিল একইরকম রসিকতা।