কাশ্মীরিদের মসিহা হিসেবে নিজেকে তুলে ধরতে চাইছেন ইমরান খান। সেই লক্ষ্যেই শুক্রবার পাক অধিকৃত কাশ্মীরের রাজধানী মুজফ্ফরাবাদে সভা করলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সভাকে 'বড় জলসা' বলেছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু সেই 'বড় জলসা' আদতে 'ফ্লপ শো'-তে পরিণত হল বলে দাবি করছেন অধিকৃত কাশ্মীরের রাজনৈতিক নেতা আমজাদ আয়ুব মির্জা।

সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে তিনি জানিয়েছেন, ইমরান খান প্রশাসন পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনিয়া প্রদেশ, সিন্ধ প্রদেশ, বালুচিস্তানের মানুষের উপর অত্যাচার চালাচ্ছে। কাজেই তাদের মুখে কাশ্মীরে ভারতের অত্যাচার চালানোর অভিযোগ অত্যন্ত হাস্যকর। এমনকী পাক অধিকৃত কাশ্মীরেও ক্রমে পাক-বিরোধী মনোভাব বৃদ্ধি পাচ্ছে। আর পাক প্রশাসনের কোনও ধারণাই নেই কীভাবে একে নিয়ন্ত্রণ করা যায়।  

আমজাদ আয়ুব মির্জার মতে ভারতের জম্মু কাশ্মীরের প্রতি সংহতি প্রকাশ নয়, বরং পাক অধিকৃত কাস্মীরের মানুষের মন পেতেই ইমরান এই জলসার আয়োজন করেছিলেন। কিন্তু পাক কাশ্মীরিরা সেই জলসায় যোগ দেবেন না বলে আগে থেকেই ঠিক করেছিলেন। তাই তাদের দেখা মেলেনি সভাতে। সভা ভরাতে অ্যাবটাবাদ, রাওয়ালপিন্ডি-সহ পাকিস্তানের অন্যান্য শহর থেকে ইমরানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ দলের কর্মীদের নিয়ে আসা হয়েছিল।