বুধবার পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিতে গিয়ে 'কাশ্মীরি ভাই'দের জন্য কেঁদে ভাসালেন পাক প্রধানমন্ত্রী খান। বললেন স্বাধীনতা দিবস আনন্দের দিন হলেও কাশ্মীরিদের দুরবস্থা দেখে তাদের মন দুখে ভরে আছে। আগামী দিনে কাশ্মীরিদের তাঁরা রাজনৈতিক, নৈতিক ও কুটনৈতিক সমর্থন দিয়ে যাওয়ার অজ্ঞীকারও করলেন।  

তবে শুধু পাক প্রধানমন্ত্রীই নন সেই দেশের রাষ্ট্রপতি আরিফ আলভির স্বাদীনতা দিবসের বক্তব্য জুড়েও থাকল কাশ্মীরের কথা। আরও একবার ভারতের ৩৭০ ধারা বাতিলের সমালোচনা করলেন। তাঁর দাবি এর ফলে ভারত রাষ্ট্রসংঘের সনদই লঙ্ঘন করেনি একি সঙ্গে লঙ্ঘিত হয়েছে সিমলা চুক্তিও।

তিনি আরও বলেন, পাকিস্তান কাশ্মীরিদের পাশে সবসময়থাকবে। কাশ্মীরি আর পাকিস্তানিরা এক বলেই তিনি দৈাবি করেন। তাঁর মতে পাকিস্তানি আর কাশ্মীরিদের দুঃখও এক। তাঁর অভিযোগ ভারতই নাকি দিনে পর দিন যুদ্ধবিরত লঙ্ঘন করে সীমান্তের এইপাড় থেকে হামলা চালায়।তাঁর আরও দাবি পাকিস্তান শান্তিপূর্ণ দেশ, আলোচনার মাধ্যমেই কাশ্মীর সমস্যার সমাধান করতে চায়। কিন্তু ভারত তাঁদের এই শান্তি নীতিকে দুর্বলতা বলে ভাবছে।