মঙ্গলবার এক বিপজ্জনক পদক্ষেপ নিল পাকিস্তান। এদিন সেদেশের নতুন রাজনৈতিক মানচিত্র উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এই নয়া পাক মানচিত্রে লাদাখ-সহ পুরো জম্মু ও কাশ্মীরকে পাকিস্তান তাদের এলাকা বলে দাবি করেছে। সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল অর্থাৎ জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহারের এক বছর পূর্ণ হওয়ার একদিন আগেই এই পদক্ষেপ নিল পাকিস্তান। এতে উপত্যকার শান্তি ও স্থিতি নষ্ট হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন কূটনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

এদিন প্রথমে পাকিস্তান মন্ত্রিসভার সকল সদস্যকে নিয়ে একটি বৈঠক করেন ইমরান খান। মন্ত্রিসভার অনুমোদনের পরই জম্মু ও কাশ্মীর এবং লাদাখ উপত্যকাকে অন্তর্ভুক্ত করে এই নতুন রাজনৈতিক মানচিত্র প্রকাশ করে পাকিস্তান। পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি বলেছেন, কাশ্মীর উপত্যকা ভারত অবৈধভাবে দখল করেছে।

আর নতুন মানচিত্রের মোড়ক উন্মোচন করে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, পাক সরকারের এই পদক্ষেপ, পাকিস্তানের জনগণের পাশাপাশি কাশ্মীরের জনগণের আকাঙ্ক্ষা পূরণ করবে। পাকিস্তানের ইতিহাসে এই দিনটিকে 'সবচেয়ে ঐতিহাসিক দিন' বলেও দাবি করেন পাক প্রধানমন্ত্রী ।

এর আগে, নেপালও তাদের নতুন রাজনৈতিক মানচিত্র প্রকাশ করেছিল। সেখানেও তিনটি ভারতীয় এলাকাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। পর পর দুই প্রতিবেশি দেশের এই মানচিত্র বদলের পিছনে চিনের হাত রয়েছে বলেই মনে করছে নয়া দিল্লি।