সোমবার ইসলামাবাদ হাইকোর্ট কুলভূষণ যাদব মামলায় বড় জয় পেল ভারত। এদিন ওই পাক আদালত মামলার শুনানি আগামী ৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্থগিত করে দিয়েছে। সেইসঙ্গে জানিয়েছে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত এই ভারতীয় নৌবাহিনীর প্রাক্তন কমান্ডার-কে রক্ষার জন্য ভারতকে আইনজীবী নিয়োগের সুযোগ দেওয়া হবে। অর্থাৎ এরপর থেকে মামলার শুনানিতে কুলভূষণ যাদবের পক্ষে সওয়াল করবেন একজন আইনজীবী।

তবে, সেই আইনজীবী নিয়োগের বিষয়ে বেশ কিছু শর্তও চাপিয়েছে ইসলামাবাদ হাইকোর্ট। প্রথমত, ওই আইনজীবীকে অবশ্যই পাকিস্তানি নাগরিক হতে হবে। দ্বিতীয়ত, ভারত সরকারকে এই আইনজীবী নিয়োগের কাজটা করতে হবে পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রকের মাধ্যমে।

এর আগে একতরফা বিচারের মাধ্যমে কূলভূষণ যাদবকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে বলে আন্তর্জাতিক আদালতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে অভিযোর করেছিল ভারত। ২০১৮ সালের জুলাই সালে আন্তর্জাতিক আদালত কূলভূষণ মামলার রায় পর্যালোচনা ও পুনর্বিবেচনা করার আদেশ দিয়েছিল পাক কর্তৃপক্ষকে। সেইসঙ্গে তাঁকে আইনি সহায়তা দেওয়ার জন্যও পাকিস্তান সরকারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

এই আদেশ অনুসারেই গত ২২ জুলাই পাকিস্তান সরকার কূলভূষণ যাদব-এর আইনি প্রতিনিধি নিয়োগের জন্য ইসলামাবাদ হাইকোর্টে আবেদন করেছিল। তারপরই এদিনের আদেশ দিল আদালত। আন্তর্জাতিক আদালতের নির্দেশ মেনেই গত ১৭ জুলাই কুলভূষণকে তৃতীয়বারের জন্য কনস্যুলার অ্যাক্সেস দিয়েছিল। অবশ্য তারপরেও পাকিস্তান এই মামলার কার্যকর পর্যালোচনার জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্র দিচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছে ভারত।