রাষ্ট্রসংঘে একাধিকবার পাকিস্তানে সংখ্যালঘুদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রসঙ্গটি উঠেছে। ফের একবার এই নিয়ে উঠল আওয়াজ। পাকিস্তানে সিন্ধি নাগরিকদের অত্যাচারের বিষয়টি নিয়ে মানবাধিকার পরিষদ সরব হলেন বিশ্ব সিন্ধি কংগ্রেসের মহাসচিব লখু লুহানা। 

 

জেনেভাতে রাষ্টসংঘের ওয়ার্ল্ড সিন্ধি কংগ্রেসের সেক্রেটারি জেনারেল লখু লুহানা বলেন, "পাকিস্তানের এজেন্সিগুলি দ্বারা সিন্ধিদের নিখোঁজ করার প্রক্রিয়াটি নিরবচ্ছিন্নভাবে অব্যাহত রয়েছে। গত তিন মাসে ৬০  বেশি অপহরণের ঘটনা ঘটেছে। মানুষের মধ্যে ভয় ধরাতে এটিকে কাজে লাগান হচ্ছে। "

 

 

লুহানি বলেন যে, " এই অপহরণে ১৫ বছরের কিশোর থেকে ৭০  বছরের বেশি বয়সী ব্যক্তিও জড়িত। পাকিস্তানি এজেন্সিগুলি এই অপহরণকে নির্মমভাবে সংখ্যালঘু কণ্ঠ রোধ করতে ব্যবহার করছে, এবং  নির্মম ভাবে সন্ত্রাস ছড়িয়ে দেওয়ার হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করছে। সিন্ধি জনগণ শত শত সমাবেশ, অনশন, বিক্ষোভ ও আবেদনের মধ্য দিয়ে তাদের আওয়াজ তুলছে, তবে দুঃখের বিষয় হ'ল পাকিস্তানের বিচার ব্যবস্থা এদিকে নজর দেয়নি। "

রাষ্ট্রসংঘের মানবাধিকার পরিষদে সহায়তার আবেদন করে লুহানা বলেন, "আমরা পাকিস্তান এজেন্সিগুলির দ্বারা নিখোঁজ হওয়া থেকে সিন্ধি লোকদের রক্ষা করার জন্য রাষ্ট্রসংঘের কাউন্সিলকে তার দায়িত্ব পালন করার অনুরোধ করছি। দোষীদের শাস্তি নিয়ে পাকিস্তান সরকার কী ভাবছে তা নিয়ে জবাবদিহি করতে হবে।"