গিলগিট-বালতিস্তানের স্বায়ত্ত্বশাসকনের অধিকার কেড়ে নেওয়া নিয়ে ঘরেই প্রবল চাপে ইমরান খান সরকার ও পাক সেনাবাহিনী। গত সপ্তাহেই জানা গিয়েছিল, গিলগিট-বালতিস্তান'কে একটি পূর্ণাঙ্গ প্রদেশে পরিণত করতে চলেছে পাকিস্তান। এবার সেই সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রকাশ্যেই পাক সেনা ও ইমরান সরকরের কড়া সমালোচনা করলেন প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের কন্যা তথা বিশিষ্ট পাক রাজনীতিক মরিয়ম নওয়াজ শরিফ।

এদিন, তিনি বলেন স্বাধীনতা গিলগিট-বালতিস্তানের মানুষের মৌলিক অধিকার। সেনা যেভাবে গিলগিট-বালতিস্তানকে পাকিস্তানের প্রদেশে পরিণত করতে চাইছে, তা সেকানুকার মানুষের প্রতি চরম অন্যায় বলে মন্তব্য করেন মরিয়ম। তিনি বলেন বিষয়টি রাজনৈতিক। এই নিয়ে পাক সংসদে নেতাদের বিষদে আলোচনার প্রয়োজন ছিল। এই বিষয় নিয়ে পাক সেনার সদর দপ্তরের সঙ্গে আলোচনা করাটা মোটেই ঠিক নয়।

স্বাভাবিকভাবেই, মরিয়মের এই মন্তব্য পাক সেনাপ্রধান জেনারেল কামার বাজওয়া এবং ইমরান খানকে চরম অস্বস্তির মধ্যে ফেলেছে। বস্তুত, গত সপ্তাহে পাকিস্তানের কাশ্মীর ও গিলগিট-বালতিস্তান বিষয়ক মন্ত্রী জানিয়েছিলেন ইমরান খান খুব শিগগিরই ওই অঞ্চলে গিয়ে নতুন প্রদেশ গঠনের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করবেন। ভারত সরকারের জম্মু ওকাশ্মীরের স্বায়ত্ত্ব শাসন বাতিলের জবাব হিসাবেই এই পদক্ষেপ নিতে চলেছে পাকিস্তান এমনটাই মনে করছেন কূটনীতিকরা।

তবে, সেই পদক্ষেপ বুমেরাং হয়ে উঠতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই স্ট্যান্ড উইথ গিলগিট বালতিস্তান এই হ্যাশট্যাগ দিয়ে পাক সরকারের এই পদক্ষেপের বিরোধিতা শুরু সহয়ে গিয়েছে। এর আগে থেকেই পাক বিরোধী দলগুলি সেনার অঙ্গুলি হেলনে চলা ইমরান সরকারের বিরুদ্ধে জোট বাঁধা শুরু করেছিল। গিলগিট-বালতিস্তান পদক্ষেপ তাদের হাতে নয়া অস্ত্র তুলে দিল বলে মনে করা হচ্ছে।