ভারতবর্ষে জাতীয় সংবিধান দিবস হিসাবে গণ্য করা হয় ২৬য়ে নভেম্বরকে। বিশ্বে সব কটা গণতান্ত্রিক দেশের মধ্যে অন্যতম বৃহতম গণতন্ত্র ভারতের। আর সেই গণতন্ত্রের সব থেকে দীর্ঘ লিখিত সংবিধন ভারতের। তাই ১৯৫০ থেকে স্মরণীয় করে রাখা হয়েছে এই সংবিধান দিবসকে। তবে ২০১১ সালে এদিনেই ভারতবর্ষে নেমে এসেছিল আতঙ্ক। ২৬/১১-র ঘটনা মানেই প্রতিটি ভারতীয়র মুখে দানা বাঁধে আতঙ্ক। জঙ্গি হামলায় এই দিনে শহিদ হয়েছিলেন একাধিক পুলিশ কর্মী থেকে শুরু করে সেনা বাহিনী। পাশাপাশি মুম্বইয়ের এই ভয়াবহ জঙ্গি হামলায় প্রাণ হারিয়েছিলেন অসংখ্য সাধারণ মানুষও। এবছর সেই হামলার কেটে গিয়েছে ১১ বছর। তবে ১১ বছর কেটে গেলেও, এখনও পর্যন্ত সেই ঘটনা চোখের সামনে ভাসে সকলের। এই আতঙ্ক থেকে বাদ নেই ক্রিকেটাররাও। এবার শহিদ ও মৃতদের প্রতি এবার শ্রদ্ধার্ঘ্য জ্ঞাপন করলো ক্রিকেট মহল। সচিন থেকে শুরু করে বিরাট কোহলিরা শ্রদ্ধার্ঘ্য জানালেন টুইটরে।


সচিন তেন্ডুলকর টুইট করে বলেন, মাঝে ১১টা বছর কেটে গিয়েছে। তবে ২৬/১১-র ঘটনা এখনও পর্যন্ত ভোলা সম্ভব হয়নি। বহু সংখ্যক মানুষ প্রাণ হারিয়েছিলেন। একই সঙ্গে মানুষের প্রাণ বাঁচানোর ঝুঁকি নিয়ে শহিদ হয়েছিলেন পুলিশ সহ জাওয়ানরা। সবাইকে আামার শ্রদ্ধার্ঘ্য জানাচ্ছি।

 

 


একই সঙ্গে বিরাট কোহলি টুইট করে লেখেন, ২৬/১১-র ঘটনা খুব বেদনাদায়ক। এই ঘটনায় অনেকেই প্রাণ হারিয়েছেন। অনেকে শহিদ হয়েছেন। সবাইকে আজ শ্রদ্ধার্ঘ্য জানাতে চাই। কেউ আমরা সেই বীরদের ভুলিনি।

 

 

বিরাটের পাশাপাশি ২৬/১১-র ঘটনার জন্য টুইট করে নিহত ও শহিদদের শ্রদ্ধার্ঘ্য জানান অন্যান্য ক্রিকেটাররাও। টুইট করে শ্রদ্ধার্ঘ্য জানান বীরেন্দ্র সেহওয়াগ, হরভজন সিং সহ চেতেশ্বর পূজারা, কুলদীপ যাদবরা।