মার্ক জ়াকারবার্গের ‘মেটা’ থেকে আবার হাজার হাজার কর্মী ছাঁটাই? চলতি মাসেই আশঙ্কায় কর্মীরা

| Mar 08 2023, 03:12 PM IST

meta

সংক্ষিপ্ত

আগামী সপ্তাহের মধ্যেই সেই তালিকা ঘোষণা করে দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যদিও এ বিষয়ে পাকাপাকিভাবে কোনও বিবৃতি জারি করেনি জ়াকাবার্গের মেটা প্ল্যাটফর্ম ইনকর্পোরেশন।

বড়সড় ছাঁটাইয়ের পথে হাঁটতে পারে মার্ক জ়াকারবার্গের সংস্থা ‘মেটা’। চলতি মাসে এমনই আশঙ্কা করছেন সংস্থায় কর্মরত হাজার হাজার কর্মী। চলতি সপ্তাহেই কর্তৃপক্ষের তরফে এই প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যেতে পারে বলে দাবি করেছে একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম। আগামী সপ্তাহের মধ্যেই সেই তালিকা ঘোষণা করে দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যদিও এ বিষয়ে পাকাপাকিভাবে কোনও বিবৃতি জারি করেনি জ়াকাবার্গের মেটা প্ল্যাটফর্ম ইনকর্পোরেশন।

২০২২ সালের নভেম্বর মাসে সংস্থা থেকে এক ধাক্কায় ১১ হাজার জন কর্মীকে সরিয়ে দিয়েছিল মেটা। কাজ হারিয়ে বিপাকে পড়েছিলেন মেটার ১৩ শতাংশ কর্মী। এর মাস চারেকের মধ্যেই বিশ্বের সবচেয়ে বড় সমাজমাধ্যম সংস্থায় আবার বহু কর্মী কাজ হারাতে পারেন বলে জানিয়েছে ব্লুমবার্গ নিউজ় নামে এক সংবাদমাধ্যম।

Subscribe to get breaking news alerts

মেটা-র এক আধিকারিকের বক্তব্য, ক্যালিফোর্নিয়ার মেনলো পার্কে সংস্থার সদর দফতরে এ নিয়ে পরিকল্পনা চূড়ান্ত স্তরে রয়েছে। সম্প্রতি কর্মীদের দক্ষতার পর্যালোচনা করতে গিয়ে চলতি বছরকে ‘দক্ষতার বছর’ হিসাবে চিহ্নিত করেছেন মেটা-র চিফ এগ্‌জ়িকিউটিভ অফিসার জ়াকারবার্গ। এর পর অদক্ষ কর্মীদের সরানোর তোড়জোড় শুরু হয়। কর্মীছাঁটাইয়ের প্রসঙ্গে অবশ্য সংবাদমাধ্যমে মন্তব্য করতে রাজি হননি মেটার মুখপাত্র। যদিও মঙ্গলবার শেয়ার বাজার খোলার আগেই মেটা-র শেয়ার দাম ১.৭ শতাংশ লাভ করেছে। অন্য দিকে, সোমবার শেয়ার বাজার বন্ধ হওয়ার সময় দেখা যায়, মেটা-র শেয়ারদরে ৫৪ শতাংশ বৃদ্ধি হয়েছে। যা চলতি বছরের গোড়া থেকে এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি বৃদ্ধি। তবে আগামী সপ্তাহে পরিবারে তৃতীয় সন্তানের আগমনের খবর পাওয়ার আগেই হয়তো কর্মীছাঁটাইয়ের প্রক্রিয়া চূড়ান্ত করে ফেলতে পারেন জ়াকারবার্গ।

আরও পড়ুন-
শুরু হতে চলেছে এসপ্ল্যানেড থেকে হাওড়া মেট্রোর ট্রায়াল রান, ২০২৩-এই সুখবর পেতে চলেছেন বঙ্গবাসী
তালিবানের মুখের ওপর সপাটে জবাব, গুজরাট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরে স্বর্ণপদক জয় করলেন আফগানিস্তানের তরুণী
৭ মার্চ তারিখটার সঙ্গে জড়িয়ে আছে বিষণ্ণতার স্মৃতি, একের পর এক মর্মান্তিক বিস্ফোরণে জর্জরিত হয়ে পড়েছিল ভারত