মোবাইলের বাজারে বেশ জনপ্রিয় এই সংস্থার ফোন। এই সংস্থার একের পর এক স্মার্টফোন ক্রমশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে গ্রাহকদের মধ্যে। স্টাইলিশ লুক-সহ উন্নতমানের ফিচার এই ফোন জনপ্রিয় হওয়ার অন্যতম কারণ। গ্যালাক্সি সিরিজের আরও একটি ফোন মোবাইলের বাজারে নিয়ে এল স্যামসাং। স্যামসাং গ্যালাক্সি এ এটুয়েনটিওয়ান এস স্মার্টফোনটি ১৭ জুন বুধবার ভারতে লঞ্চ হবে। স্যামসাং ইন্ডিয়া টুইটারের মাধ্যমে এই তথ্য দিয়েছে। গত মাসে যুক্তরাষ্ট্রে স্যামসাংয়ের বাজেট এ-সিরিজের নতুন সংস্করণ হিসাবে এটি চালু হয়েছে। ফোনে চারটি রিয়ার ক্যামেরা রয়েছে। এর বাইরে এটি একটি অক্টা-কোর প্রসেসর এবং পাঁচ হাজার এমএএইচ ব্যাটারি পাবেন। তিনটি রঙের বিকল্পে উপলব্ধ, এই ফোনটি সুরক্ষার জন্য ফেস আনলত এবং ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর এর সুবিধা রয়েছে। জেনে নেওয়া যাক নতুন কি কি ফিচার রয়েছে স্যামসাং গ্যালাক্সি এটুয়েনটিওয়ানএস স্মার্টফোনে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এটুয়েনটিওয়ানএস স্মার্টফোনে সেলফি ক্যামেরার জন্য রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সেন্সর। প্রাইমারি ক্যামেরায় থাকছে ১) ৪৮ মেগাপিক্সেল ওয়াইড সেন্সর, ২) ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড সেন্সর ৩) ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর, ৪) ২ মেগাপিক্সেল ডেপথ সেন্সর। এর সঙ্গে রয়েছে এইচডিআর, প্যানোরোমার সেন্সরের সুবিধা। স্যামসাং গ্যালাক্সি এটুয়েনটিওয়ানএস স্মার্টফোনে রয়েছে ৩ জিবি ব়্যাম ও ৩২ জিবি ইন্টারন্যাল স্টোরেজ, ৪ জিবি ব়্যাম ও ৬৪ জিবি ইন্টারন্যাল স্টোরেজ, ৬ জিবি ব়্যাম ও ৬৪ জিবি ইন্টারন্যাল স্টোরেজ ক্যাপাসিটি।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এটুয়েনটিওয়ানএস স্মার্টফোনে রয়েছে এলইডি ফ্ল্যাসএর সুবিধা। স্মার্টফোন পাওয়া যাবে আকর্ষণীয় কালো, সাদা, নীল ও লাল রঙের ভেরিয়েশনে। এই ফোনের ডিসপ্লেতে রয়েছে ওয়াটার ডপ নচ এর সুবিধা। সেই সঙ্গে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে রয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ১০-সহ ওয়ান ইউআই ২.০।  এই স্মার্টফোনে ডিসপ্লের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে সুপার অ্যামোলেড ক্যাপাসিটিভ টাচস্ক্রিন, সঙ্গে ১৬এম কালার। এছাড়াও স্যামসাং গ্যালাক্সি এটুয়েনটিওয়ানএস স্মার্টফোনে রয়েছে ফাস্ট চার্জিং এর সুবিধা সহ ৫০০০ এমএএইচের ব্যাটারি। যুক্তরাষ্ট্রে এই ফোনের মূল্য ধার্য করা হয়েছিল ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১৬,৫০০ টাকা। তবে ভারতে এই ফোনের দাম কত থাকবে তা জানা যাবে লঞ্চের সময়েই।