জাপানের ওসাকায় অনুষ্ঠিত জি২০ সম্মেলনের ফাঁকে চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প-এর বৈঠকে শুল্কযুদ্ধ নিয়ে বরফ গলার ইঙ্গিত পাওয়া গেল। শনিবার প্রায় দেড় ঘন্টা ধরে বৈঠকের পর দুই দেশের বাণিজ্যবিরোধ মেটানোর ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছে। 

সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, গতকাল জি-২০ বৈঠকের ফাঁকে চিন এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে পুনরায় বাণিজ্য আলোচনা শুরু করা হবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। চিনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে খবর, আলোচনার পথ প্রসস্ত করতে চিন থেকে আমদানিকৃত পণ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নতুন করে আর কোনও শুল্ক আরোপ করবে না। 

প্রসঙ্গত, প্রায় বছর খানেক ধরে চলতে শুল্ক-যুদ্ধের জেরে চিন ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র রপ্তানি পণ্যের ওপর প্রায় কয়েকশো কোটি ডলারের শুল্ক আরোপ করে রেখেছিল। আর এই শুল্ক-যুদ্ধের জেরে চিন ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি গোটা বিশ্ব বাণিজ্যের পর এর একটা নেতিবাচক প্রভাব পড়ছিল। পশ্চিমের বাজারে আর্থিক মন্দা দেখা দিয়েছিল। তবে এদিনের বৈঠকের পর জানা গিয়েছে, চিন থেকে আমদানিকৃত পণ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আর নতুন করে শুল্ক বসাবে না। বৈঠকে চিনা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে অনুরোধ করেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যেন, চিনা কোম্পানীগুলিকে সঠিকভাবে মূল্যায়ণ করে। 

প্রসঙ্গত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তার ক্ষেত্রে চিনা সংস্থা হুয়াই'কে বিপজ্জনক আখ্যা দেওয়া হয়েছিল। চিনা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠকের পর ট্রাম্প জানান, হুয়াইয়ের উপর যে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছিল তা আপাতত স্থগিত রাখা হচ্ছে।তবে  এই সাময়িক সংঘর্ষবিরতির জেরে স্থায়াী কো নও সমাধান সম্ভব কিনা, তা নিয়ে সংশয় রয়েই গিয়েছে।