শেক্সপিয়ার লিখেছিলেন, 'নামে কী আসে যায়'। সত্যিই হয়তো নামে কিছু আসে যায় না, কিন্তু তাও এক শতকেরও বেশি তফাতে একটি নামই ভারতের ধ্বজা তুলে ধরল মার্কিন মুলুকে। বিশ্বের দরবারে জিতে নিল কোটি মানুষের হৃদয়। সেই নামটা হল নরেন্দ্র।

১৯৮৩ সালের ১১ সেপ্টেম্বর স্বামী বিবেকানন্দ আমেরিকার শিকাগোতে হিন্দু ধর্ম নিয়ে তাঁর বিখ্যাত ভাষণটি দিয়েছিলেন। মার্কিন মুলুকে যেখানে হিন্দু ধর্ম সম্পর্কে কারোর সম্যক ধারণাই ছিল না, সেখানেই তিনি হিন্দু ধর্মের ত্যাগের দর্শন তুলে ধরে নড়িয়ে দিয়েছিলেন ভোগবাদী বিশ্বকে। স্বামী বিবেকানন্দ সন্ন্যাস নেওয়ার আগে তাঁর নাম ছিল নরেন্দ্রনাথ দত্ত।

১২৬ বছর ১১ দিন পর আরও এক নরেন্দ্র ফের ভারতের নাম তুলে ধরলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। এই নরেন্দ্র অবশ্যই ভারতের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র দামোদরদাস মোদী। রবিবার হিউস্টন শহরে 'হাউডি মোদী' অনুষ্ঠানে তাঁর বক্তব্যকে যেভাবে গুরুত্ব দিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলি, তাতে ফের একবার ভারতের দিকে ফিরে তাকাতে বাধ্য হচ্ছে বিশ্বের তাবড় দেশগুলি।

দুজনের অবস্থান, প্রেক্ষিত, বক্তব্যের বিষয়, সময় অনেক কিছুই আলাদা হলেও একটা কথা বলাই যায়, দুই নরেন্দ্রই কিন্তু মার্কিন দেশে ভারতকে গর্বিত করেছেন।