Asianet News BanglaAsianet News Bangla

ভারতকে হাতে রেখে পাকিস্তানকে ফাইটার জেট বিক্রি? কোন পথে খেলছে আমেরিকা

দক্ষিণ এশিয়া এবং মধ্য এশিয়া বিষয়ক মার্কিন সহকারী বিদেশমন্ত্রী ডোনাল্ড লু বলেছেন তারা পাকিস্তানের এফ-১৬ যুদ্ধবিমানকে আরও উন্নত করার জন্য সমস্ত সরঞ্জামের বিক্রি অনুমোদন করেছে। পেন্টাগনের পক্ষ থেকে ৪৫০ মিলিয়ন ডলার মূল্যের একটি চুক্তির কথাও জানানো হয়েছে। 

It is a sale, not assistance-US diplomat on supply of F-16 equipment to Pakistan bpsb
Author
First Published Sep 9, 2022, 7:26 PM IST

জো বাইডেনের নেতৃত্বাধীন মার্কিন সরকার পাকিস্তানকে ৪৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের F-16 ফাইটার জেট ফ্লিট টেকসই প্রোগ্রাম অনুমোদন করেছে, ট্রাম্প জমানার একটি চুক্তিকে বাস্তবায়িত করা হচ্ছে বলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র জানিয়েছে। তবে মাস কয়েক আগেই পাকিস্তানকে সবরকম সহায়তা থেকে সরে এসেছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। তাহলে কেন ফের আমেরিকা পাকিস্তান লেনদেন। এই প্রশ্ন বিশ্ব রাজনৈতিক মহলে। নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করতে একজন শীর্ষ মার্কিন কূটনীতিক বলেছেন যে এটি পাকিস্তানের সাথে থাকা F-16 ফ্লিটের খুচরো যন্ত্রাংশ বিক্রির প্রক্রিয়া। কখনই মার্কিন সরকারের কাছ থেকে সহায়তা নয়।

দক্ষিণ এশিয়া এবং মধ্য এশিয়া বিষয়ক মার্কিন সহকারী বিদেশমন্ত্রী ডোনাল্ড লু বলেছেন তারা পাকিস্তানের এফ-১৬ যুদ্ধবিমানকে আরও উন্নত করার জন্য সমস্ত সরঞ্জামের বিক্রি অনুমোদন করেছে। পেন্টাগনের পক্ষ থেকে ৪৫০ মিলিয়ন ডলার মূল্যের একটি চুক্তির কথাও জানানো হয়েছে। তবে জানা যাচ্ছে, নতুন এই চুক্তিতে যুদ্ধবিমানটির জন্য ‘কোনও নতুন ক্ষমতা, অস্ত্র অথবা গোলাবারুদ’ কেনা যাবে না।

ডোনাল্ড লু আরও বলেছেন "এটি একটি বিক্রিগত লেনদেন, কোনও সহায়তা নয়। আমরা উইংস এবং সরঞ্জামগুলির পরিষেবা দেওয়ার প্রস্তাব করছি যাতে এই বিমানগুলি বায়ু সুরক্ষার মান পূরণ করতে পারে,"। লু বলেন, এই কর্মসূচির আওতায় পাকিস্তানকে নতুন কোনো সক্ষমতা ও অস্ত্র ব্যবস্থা দেওয়া হচ্ছে না।

It is a sale, not assistance-US diplomat on supply of F-16 equipment to Pakistan bpsb

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে, পাকিস্তান বালাকোট হামলার পর ভারতকে আক্রমণ করার জন্য একই বিমান ব্যবহার করেছিল পাকিস্তান। এই ক্ষেপণাস্ত্রগুলির ক্ষমতা মাঝারি রেঞ্জের আর-৭৭ -এর তুলনায় কিছুটা বেশি। আর-৭৭ ব্যবহার করত ভারতীয় বিমান বাহিনীর এসইউ-৩০ এমকেআই এবং এমআইসিএ ব্যবহার করত মিরাজ। আমেরিকার এআইএম-১২০ সি-৫ এএমআরএএএম (অ্যাডভান্সড মিডিয়াম-রেঞ্জ এয়ার-টু-এয়ার মিসাইল)-এর সাহায্যে উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানের মিগ ২১ বাইসন বিমানটি গুলি করে নামায় পাকিস্তানের বায়ুসেনা। এই যুদ্ধবিমান পাকিস্তানের বিমান বাহিনীর প্রধান ভরসা। তবে তাদের কাছে বেশি সংখ্যায় চিনের তৈরি জেএফ-১৭ আছে। 

বিদেশ নীতি এবং জাতীয় নিরাপত্তা ওয়েবসাইট ওয়ার অন দ্য রকস একটি রিপোর্টে উল্লেখ করেছে ১৯৮৬ থেকে ১৯৯০ এর মধ্যে, পাকিস্তানি এফ-১৬ অন্তত ১০টি আফগান এবং সোভিয়েত জেট, হেলিকপ্টার এবং পরিবহন বিমানকে গুলি করে ধ্বংস করেছে। উল্লেখ্য, ১৯৮১ সালে আফগানিস্তানে সোভিয়েত আগ্রাসনের পর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র পাকিস্তানের কাছে এফ-১৬ জেট বিক্রি করে। আমেরিকার উদ্দেশ্য ছিল এই বিমানগুলিকে সোভিয়েত এবং আফগান জেটের বিরুদ্ধে ব্যবহার করা। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios