Asianet News BanglaAsianet News Bangla

নাসার চন্দ্র অভিযান বাতিল একদম শেষ মুহূর্তে, আর্টেমেসি-১-এর ইঞ্জিনে বিভ্রাট

নাসার অভিযানে ৫০ বছর আগে শেষবারের মত চাঁদের মাটিতে পা রেখেছিল মানুষ। তারপর আবার নতুন করে চন্দ্র অভিযানে হাত দিয়েছিল মার্কিন মহাকাশ সংস্থা। কিন্তু শেষ মুহুর্তে তা বন্ধ করে দিতে হয়। ইঞ্জিন বিভ্রাটের কারণেই 'আর্টেমেসি -১ ' এর চন্দ্র অভিযান স্থগিত রাখা হয়েছে বলে নাসা সূত্রের খবর।

NASA s Moon Artemis 1 mission  Postpones Launch at the last minute due to engine failure bsm
Author
First Published Aug 29, 2022, 8:37 PM IST

নাসার অভিযানে ৫০ বছর আগে শেষবারের মত চাঁদের মাটিতে পা রেখেছিল মানুষ। তারপর আবার নতুন করে চন্দ্র অভিযানে হাত দিয়েছিল মার্কিন মহাকাশ সংস্থা। কিন্তু শেষ মুহুর্তে তা বন্ধ করে দিতে হয়। ইঞ্জিন বিভ্রাটের কারণেই 'আর্টেমেসি -১ ' এর চন্দ্র অভিযান স্থগিত রাখা হয়েছে বলে নাসা সূত্রের খবর। 

চারটি RS-25 ইঞ্জিনের একটিতে তাপমাত্রার সমস্যার কারণে সোমবার নাসা তার বিশালাকার মুন রকেটের পরীক্ষামূলক ফ্লাইটটি স্থগিত রেখেছে। উৎক্ষেপণের মাত্র ৪০ মিনিট আগে প্রকল্পটি বাতিল ঘোষণা করা হয়। আর্টেমিস ১ মিশনের প্রবর্তনের বিকল্প তারিখও জানিয়েছে। শেষপর্যন্ত  মঙ্গল গ্রহে যাওয়ার একটি উচ্চাভিলাষী কর্মসূচির অংশ হিসাবে চাঁদের চারপাশে একটি ক্রুবিহীন উড়বে, ২ সেপ্টেম্বর এবং ৫ সেপ্টেম্বর।

ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেষ সেন্টারের কাছে সমুদ্র সৈকতে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস-সহ কয়েক হাজার মানুষ উৎক্ষেপণ দেখার জন্য জড়ো হয়েছিলেন। অ্যাপোলো-১৭ নভোশ্চারীদের চাঁদে শেষবার পা রাখার ৫০ বছর পরই এই মিশনটি গ্রহণ করেছিল নাসা। 

আর্টিমেসি -১ নামের ফ্লাইটের লক্ষ্য হল রকেটের উপরে বসে থাকা SLS  ও এরিয়ন ক্রু ক্যাপসুল পরীক্ষা করা। সেন্সর দিয়ে সজ্জিত ম্যানেকুইনগুলি মিশনের জন্য একজন ক্রুর জন্য দাঁড়িয়ে রয়েছে। 


আগেই জানান হয়েছিল নাসার ‘ডিপ স্পেস এক্সপ্লোরেশন’-এর প্রাথমিক পর্ব এই ‘আর্টেমিস-১’। সব ঠিক থাকলে ২০২৪ সালের মধ্যে নাসা চাঁদে মহিলা মহাকাশচারী পাঠাবে বলে জানিয়েছে।

আর্টেমিস্ট -১ মহাকাশযানটি ৯৮ মিটার লম্বা। বিশাল কমলা ও সাদা রঙের রকেটটি তৈরি করতে কয়েক দশকেরও বেশি সময় লেগেছিল। গ্রিক পুরাণ অনুযায়ী চাঁদের দেবী আর্টেমিস। তাঁর নাম অনুসারণেই চন্দ্রযানের নাম রাখা হয়েছিল। জ্বালানি হিসেবে এতে ভরা হয়েছিল ৩০ লক্ষ লিটার অতিরিক্ত ঠান্ডা তরল হাইড্রোজেন ও অক্সিজেন। মূলত এসএলএস (স্পেশ লঞ্চ সিস্টেম) ও ওরিয়ন ক্রিউ ক্যাপসুলের পরীক্ষামূলক ব্যবহারের জন্য এই রকেট চাঁদে পাঠান হচ্ছে। এর সাফল্যের ওপর নির্ভর করছে মঙ্গল অভিযান। 

বিমানের মত গ্রহাণু ধেয়ে আসছে, তবে কি ভোররাতেই ধ্বংস হবে পৃথিবী- জানুন নাসা কী বলছে

বন্যায় বিপর্যস্ত পাকিস্তান, যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন শত শত গ্রাম- বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা

আতঙ্কের পাকিস্তান- ৮ বছরের হিন্দু শিশুকন্যাকে গণধর্ষণ করে চোখ উপড়ে নিল দুষ্কৃতীরা

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios