দেশে বাড়ছে আর্থিক বৈষম্য, এক শতাংশ বিত্তশালী মানুষের কাছেই রয়েছে সম্পদের সিংহভাগ

ভারতের এক শতাংশ সবথেকে বিত্তশালী নাগরিকের সম্পদ দরিদ্রতম ৯৫ কোটি ৩০ লক্ষেরও বেশি মানুষের মোট অর্থের চার গুণেরও বেশি। আর এই বিশাল সংখ্যক জনসংখ্যা হল দেশের মোট জনসংখ্যার ৭০ শতাংশ। এমনটি কেন্দ্রীয় বাজেটের তুলনায় ভারতীয় ধনকুবরদের সম্পত্তির পরিমাণ বেশি, নতুন একটি গবেষণায় এমনটাই উঠে আসছে। 
 

| Jan 21 2020, 12:08 PM IST

Share this Video
  • FB
  • TW
  • Linkdin
  • Email

ভারতের এক শতাংশ সবথেকে বিত্তশালী নাগরিকের সম্পদ দরিদ্রতম ৯৫ কোটি ৩০ লক্ষেরও বেশি মানুষের মোট অর্থের চার গুণেরও বেশি। আর এই বিশাল সংখ্যক জনসংখ্যা হল দেশের মোট জনসংখ্যার ৭০ শতাংশ। এমনটি কেন্দ্রীয় বাজেটের তুলনায় ভারতীয় ধনকুবরদের সম্পত্তির পরিমাণ বেশি, নতুন একটি গবেষণায় এমনটাই উঠে আসছে। 

ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের পঞ্চাশতম বার্ষিক সভার আগে নিজেদের প্রতিবেদশন পেশ করেছে অক্সফ্যাময সমীক্ষাটির নাম দেওয়া হয়েছে 'টাইম টু কেয়ার।' সমীক্ষায় দাবি করা হয়েছে বিশ্বের ২,১৫৩ জন ধনকুবেরের মোট অর্থের পরিমাণ বিশ্বের ৪.৬ বিলিয়ন মানুষের থেকে বেশি। অর্থাৎ মোট জনসংখ্যার ৬০ শতাংশের থেকে বেশি ওই ধনকুবেরদের আর্থিক সম্পদ। 

আর্থিক অসাম্য বিশ্বজুড়েই অস্বাভাবিক হারে বেড়ে গিয়েছে। এমনটাই জানান হয়েছে এই রিপোর্টে। গত দশ বছরে বিলিয়নেয়ারদের সংখ্যা দ্বিগুণ হলেও অবশ্য গত বছরে তাঁদের সম্পদের পরিমাণ কমেছে। 

বর্তমান সময়ে প্রায় প্রতিটি দেশেই এই অসাম্যকে কেন্দ্র করে অস্থির পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এই  বৈষম্য দুর্নীতি, সংবিধান লঙ্ঘন, জীবণ ধারণের জন্য মৌলিক উপাদান ও সেবার  মূল্য বৃদ্ধির কারণে উদ্ভূত হচ্ছে।