দুই দিনের রাজ্য সফরে এসেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সফরের প্রথম দিনে মেদিনীপুরে কৃষক বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজন সেরেছিলেন। এবার সফরের দ্বিতীয় দিনে তাঁর শান্তিনিকেতন সফরে বাউল শিল্পীর বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজন সারলেন অমিত শাহ। সঙ্গে ছিলেন মুকুল রায়, দিলীপ ঘোষ সহ রাজ্য বিজেপির অন্য়ান্য শীর্ষ নেতারা। এদিন রতনপল্লির বাসিন্দা বাসুদেব দাস বাউলের বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজন সারেন শাহ। তাঁর মেনুতে ছিল হরেকরকম পদ।

আরও পড়ুন-'রবীন্দ্রনাথকে অসম্মান করছেন উনি', শাহ সফরে চোখে শস্যে ফুল দেখে ফের চটলেন ফিরহাদ

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মধ্যাহ্নভোজন ঘিরে রতনপল্লির বাসিন্দা বাসুদেব বাউলের বাড়িতে ছিল সাজোসাজো রব। শহর সফরের আগে থেকেই বাসুদেব বাউলের বাড়ি কড়া নিরাপত্তার বেষ্টনী ঘেরা ছিল। রবিবার তাঁর শান্তিনিকেতন সফরে বাউল শিল্পীর মধ্য়হ্নভোজনের সমস্ত পদের রান্না হয়েছিল মাটির উনুনে। অমিত শাহর সঙ্গে মধ্যাহ্নভোজনে উপস্থিত ছিলেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়, মুকুল রায়, অনুপম হাজরা, দিলীপ ঘোষ সহ অন্য়ান্যরা।

আরও পড়ুন-শাহ-সফরের আগেই অশান্তি শান্তিকেতনে, বোলপুরে পোড়ানো হল BJP সমর্থকদের দোকান

কী কী ছিল শাহর মধ্যাহ্নভোজনের মেনুতে?

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর মতো গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি মধ্য়াহ্নভোজন সারবেন বাউল শিল্পীর বাড়িতে। বিজেপির হেভিওয়েট এই নেতার খাবার মেনুতে কোনও রকম ত্রটি রাখেননি বাউল শিল্পী বাসুদেব দাসও। মেনুতে ছিল ভাত-আলু ভাজা, বেগুন ভাজা-পটল ভাজা-আলু পোস্ত-পালং শাকের তরকারি। এছাড়াও মেনুতে অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল স্যালাড টোমাট্যোর চাটনি, পায়েস. টকদই, সঙ্গে নলেনগুড়ের রসগোল্লা। মাটির থালায় কলাপাতা দিয়ে খাবার পরিবেশন করেন বাউল শিল্পী রতন দাসের পরিবার।