বাংলা ও অসমের প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করতে দিল্লিতে বৈঠকে বসেছে বিজেপির নির্বাচন কমিটির সদস্যরা। বৈঠকে উপস্থিত রয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, বিজেপি প্রধান জেপি নাড্ডা, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ, পরিবহন মন্ত্রী নিতিন গডকরির মত প্রথম সারির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। দলীয় সূত্রের খবর এক দিনে প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করা সম্ভব নয়। শুক্রবারও এই রাজ্যের প্রার্থী তালিকা নিয়ে আলোচনা হবে। 

দলীয় সূত্রে খবর এই বৈঠকেই আলোচনা হবে নন্দীগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্র নিয়ে। কারণ রাজ্যের মত গোটা দেশের চোখ রয়েছে ওই কেন্দ্রে।  রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো ঘোষণা করেছিলেন তিনি নন্দীগ্রামে প্রার্থী হবেন। অন্যদিকে শুভেন্দু অধিকারীও জানিয়েছেন ভোট লড়াইতে বিজেপির হয়ে নন্দীগ্রামেই লড়াই করতে চান। সূত্রের কবর এদিন জেপি নাড্ডা ও অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠকে এমনই ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। সঙ্গে ছিলেন সদ্যো তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ও।  বৈঠকে অংশ নিতে  দিল্লিতে রয়েছে বিজেপির রাজ্যসভাপতি দিলীপ ঘোষ, রাজ্যের কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়। বৈঠকে রয়েছে অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল ও তাঁর মন্ত্রিসভারসদস্য হিমন্ত বিশ্ব শর্মা। তাঁরাও অসম বিধানসভা ভোটে দলের রণকৌশল নিয়ে বৈঠক করবেন। 

সূত্রের খবর দিল্লিতে বিজেপি শীর্ষ স্থানীয় নেতৃত্বের এই বৈঠকের দিকে চেয়ে রয়েছে রাজ্যের রাজনৈতিক মহল।  এই বৈঠকেই নন্দীগ্রামের প্রার্থী নির্বাচন সহ  রাজ্যের ৬০ আসনের প্রার্থী তালিকায় সিলমহর দিতে পারে বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব। যদিও এই বৈঠকের আগে একাধিকবার রাজ্য নেতৃত্ব নিজের মধ্যে বৈঠক করেছিল। ডাকা হয়েছিল কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে। নিয়ম অনুযায়ী কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিটিই প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করবে। যদিও বিজেপির একাংশ বলছেন এটি নিয়ম রক্ষার আসল তালিকা তৈরি করেছে রাজ্য নেতৃত্ব। আসল কাজ আগেই হয়ে গিয়েছে। এদিনের বৈঠকে প্রার্থী তালিকায় সিলমহল পড়বে।