শনিবার  ৯ জানুয়ারি রাজ্যে আসছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। এবার বর্ধমান সফর করবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি।নিরাপত্তার কারণেই বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার বর্ধমান শহরে রোড শোয়ের রুট বদল করা হয়েছে বলে জানিয়েছে জেলা পুলিশ প্রশাসন। তাই সেই নয়া রুটে রোড সো সফল করতে শেষ পর্যায়ের প্রস্তুতি নিচ্ছে রাজ্য বিজেপি। দলের সর্বভারতীয় সভপতির সফরকে সফল করতে পূর্ব বর্ধমানে উপস্থিত কেন্দ্রীয় নের্তৃত্ব। এবার নাড্ডা সফরের সময় সূচিটা জেনে নেওয়া যাক।


বাংলা সফরে সকাল এগারোটায় কাজী নজরুল ইসলাম বিমানবন্দরে নামবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। সেখানে তাঁকে স্বাগত জানাবে বিজেপির শীর্ষ নের্তৃত্ব। সভা করার আগে ১১ টা ৪০ নাগাদ নাড্ডা যাবেন রাধা গোবিন্দ মন্দির। এরপর কৃষক সুরক্ষা সভা উপলক্ষে ১১ টা ৫০ নাগাদ পৌছবেন জগনান্দপুর গ্রামে। কর্মসূচি অনুযায়ী এরপর ১১ টা ৪৫ এ তিনি যাবেন দুয়ারে-দুয়ারে যাবেন শস্য সংগ্রহ করতে। দুপুর ১ টায় এক কৃষক পরিবারে মধ্য়াহ্নভোজ সারবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি। এরপরে ২ টা ৫ মিনিটে নামবেন বর্ধমান হেলিপ্যাডে। স্বাগত জানাবে বিজেপির কার্যকর্তা- শীর্ষ নের্তৃত্ব। এরপর ৩ টে ১০ মিনিটে ক্লক টাওয়ার থেকে শুরু হবে রোড শো। এরপর রোড শোয়ের পর ৪ টে ২০ নাগাদ সর্বমঙ্গলা মন্দিরে পুজো দেবেন তিনি। বিকেল সাড়ে পাঁচটা নাগাত সিনক্লেয়ার রিসর্টে তিনি সাংবাদিক সম্মেলনে থাকবেন। তারপর আবার রাত ৯ টা ১৫ মিনিট নাগাদ কাজী নজরুল ইসলাম বিমানবন্দর থেকে দিল্লির উদ্দেশ্য়ে রওনা হবেন। 


 বর্ধমানে জেপি নাড্ডার প্রস্তুতি সভা খতিয়ে দেখেন বিজেপির কেন্দ্রীন নেতা তথা রাজ্য পর্যবেক্ষক অরবিন্দ মেনন। জেপি নাড্ডার সভায় তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদান করতে পারেন তৃণমূলের কিছু নেতা। উল্লেখ্য, বিধানসভা ভোটের আগে জেপি নাড্ডা ও অমিত শাহ প্রতি মাসেই বাংলা সফর করবেন বলে বিজেপির তরফ থেকে আগেই জানানো হয়েছিল। ৯ জানুয়ারি জেপি নাড্ডা এলে ৩০ জানুয়ারি আসছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। ওই দিন বনগাঁয়া মতুয়াদের সঙ্গে একটি সমাবেশ করতে পারেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সেখানে থাকবেন বিজেপি সাংসদ শান্তুনু ঠাকুরও। গত ১০ ডিসেম্বর রাজ্য সফরে এসে ডায়মন্ড হারবার যাওয়ার পথে জেপি নাড্ডার কনভয়ে হামলা হয়েছিল। তা নিয়ে রাজ্য-কেন্দ্র চাপানউতোর চলছেই। এই অবস্থায় বছরের প্রথমেই সফরে আসছেন জেপি নাড্ডা।