নির্বাচনী প্রচার শুরু হয়ে গিয়েছিল ভোট ঘোষণার আগে থেকেই। ২৭ ফেব্রুয়ারি হয়ে গিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের বিধানসবা নির্বাচনের দিন ঘোষণা। তারপর প্রায় এক সপ্তাহ কেটে গেলেও কোনও দলই তাদের প্রার্থী তালিকায় প্রকাশ করেনি। কিন্তু বেশ কিছু জায়গায় প্রার্থী তালিকা ঘোষনার আগেই নাম সহ দেওয়াল লেখায় বিড়ম্বনা বেড়েছে শাসক দলের। যদিও পরে ভুল স্বীকার করেছে ঘাস-ফুলের কর্মীরা। কিন্তু এবার সে পথে না হেঁটে প্রার্থীর নাম ছাড়া দেওয়াল লিখন শুরু করল বিজেপি।

"

বিজেপির প্রার্থী তালিকা চুড়ান্ত করতে বৈঠক চালাচ্ছে রাজ্য ও কেন্দ্র নেতৃত্ব। তবে নীচু তলার কর্মীরা বসে না থেকে এগিয়ে রাখছেন প্রচার ও কাজ। তেমনই ছবি ধরা পড়ল পশ্চিমমেদিনীপুরের কেশিয়াড়ী ব্লকে। সেখানে জোর কদমে দেওয়ার লেখার কাজ শুরু করে দিয়েছেন বিজেপি কর্মীরা। সঙ্গে রয়েছে জেলা নেতৃত্বও। কেশিয়াড়ী ব্লকের বিভিন্ন জায়গায় দেওয়াল লিখন চলে। প্রার্থীর নামের জায়গা ফাঁকা রেখে, 'পদ্মফুল চিহ্নে ভোট দিন' এই মর্মে দেওয়াল লেখা গয়। পরে প্রার্থী ঘোষণা হওয়ার পর নাম বসিয়ে দেওয়ার হবে বলে জানান বিজেপি কর্মীরা।

"

কেশিয়াড়ীতে গতবার পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর থেকে বিজেপি অনেকটাই শক্তি বৃদ্ধি করেছে। এদিনের দেওয়াল লিখন কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন,কেশিয়াড়ীর দুই মন্ডল সভাপতি সনাতন দোলাই ও যুবজিত পালোই, বিজেপির জেলা সম্পাদক বিনোদ বিহারী মুর্ম্মূ সহ অনেকেই। পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশিয়াড়ীতে শাসক দল বিজেপিকে কোনও লড়াই দিতেই পারবে না, বিজেপেরি জয়ের বিষয়েও একশো শতাংশ আত্মবিশ্বাসী জেলা বিজেপি নেতৃত্ব।