২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রীর মুখ কে? এই নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরেই চলছে জল্পনা। শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে একাধিকবার আক্রমণ শানানো হয়েছে যে, একাধিক ব্যক্তির নাম রয়েছে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী ও উপ মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে। কখনও শোনা গেছে মুকুল রায়ের নাম, দিলীপ ঘোষ, কখনও আবার কৈলাস বিজয়বর্গীয়র নাম। শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগদানের র উঠে এসেছে তার নামও। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কেও বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী প্রোজেক্ট করা হতে পারে বলে শোনা যাচ্ছিল। তবে পাকাপাকিভাবে এখনই কিছুই জানানো হয়নি পদ্ম শিবিরের তরফে।

এই জল্পনার মধ্যেই অবশেষে জানা গেল বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর নাম। আর সেই রহস্যভেদ করলেন বিজেপির সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। জানিয়ে দেন, রাজ্যে বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষই বিজেপির মুখ্যমন্ত্রীর মুখ। সোমবার যুব মোর্চার সমাবেশ উপলক্ষ্যে শ্চিম মেদিনীপুরের দাঁতনে গিয়েছিলেন সৌমিত্র খাঁ। সেখানেই বক্তব্য রাখতে গিয়ে বিজেপি সাংসদ বলেন,'শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বেই ভাঙবে তৃণমূল। আর রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হবেন দিলীপ ঘোষ। তিনি সংসারধর্ম করেননি। আমার দৃঢ় বিশ্বাস তাঁকেই একদিন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দেখা যাবে। দায়িত্ব নিয়ে রাজ্য চালাবেন।  সৌমিত্র খাঁ-এর এহেন মন্তব্যের পরই শোরগোল পড়ে গিয়েছে বিজেপির অন্দরে।

রাজ্যে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী কে হবে দলের তরফে সরকারিভাবে কিছু বলা হয়নি। বিজেপি সূত্রে খবর, নির্বাচনের আগে কোনও মুখ্যমন্ত্রী প্রজেক্ট না করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে সামনে রেখেই ভোটের ময়দানে নামা হবে। যদিও বাংলার কাওকেই মুখ্যমন্ত্রী করা হবে সে বিষয়ে অভয়বাণী শুনিয়ে গিয়েছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ। এই আবহে সৌমিত্র খাঁ বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দিলীপ ঘোষের নাম বলায় দলের ভিতরের কোনও সিদেধান্ত ফাঁস করলেন কিনা তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন।