বাংলার ভোট নিয়ে দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠক করে রাজ্যের মহিলাদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিজেপি নেতা তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ। প্রথম দফা নির্বাচনে বাংলা থেকে বিজেপি তিরিশটির মধ্যে ছাব্বিশটি আসন পাবে বলেও দাবি করেছেন তিনি। একই সঙ্গে রবিবার দিল্লিতে  বিজেপির কেন্দ্রীয়  কার্যালয় সাংবাদিক বৈঠক অমিত শাহ বলেন দীর্ঘদিন পরে বাংলাতে শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ হয়েছে। অমস ভোটের প্রসঙ্গও উত্থাপন করেন তিনি। 

শনিবার রাজ্যের পাঁচ জেলার ৩০চি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ হয়েছে।  যা ছিল মূলত জঙ্গলমহল এলাকায়। গত লোকসভা নির্বাচন থেকে এই এলাকায় শক্তিশালী হয়েছিল বিজেপি। বিধানসভা ভোটেই তার প্রভাব পড়বে। দিল্লিতে দলীয় কার্যালয় সাংবাদিক বৈঠক করে অমিত  শাহ বলেন যে ৩০টি  আসনে গতকাল ভোট গ্রহণ হয়েছে তার মধ্যে ২০টি আসন পাবে বিজেপি। বুথ স্তরের বিজেপি নেতা ও কর্মীদের সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনার পরেই তিনি এই দাবি করছেন বলেও জানিয়েছেন। অমিত শাহ বলেন দীর্ঘ দিন পরে বাংলায় নির্বাচন ছিল শান্তিপূর্ণ। বিজেপিকে ভোট দেওয়ার জন্য রাজ্যের মানুষকেও তাঁরা স্বাগত জানিয়েছেন। তিনি বিজেপিকে ভোট দেওয়ার জন্য রাজ্যের মহিলাদেরও ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তিনি বলেন আগামী দিনে বিজেপি বাংলার ক্ষমতায় আসবে। ২০০টি আসন পাবে বলেও দাবি করেন তিনি। 

অমিত শাহ বলেন বাংলার মানুষ মমতার সরকারির ওপর রীতিমত হতাশ হয়েছে।রাজ্যের মানুষই বাম জমনার অবসান ঘটিয়ে পরিবর্তনের লক্ষ্যে তৃণমূলকে ক্ষমতায় এনে দিয়েছিলেন। কিন্তু  ১০ বছরে কোনও পরিবর্তন হয়নি। আসল পরিবর্তনের লক্ষ্যে রাজ্যের মানুষ এবার বিজেপিকে ভোট দেবে বলেও আশা প্রকাশ করেছেন তিনি। তিনি আরও বলেন, সোনার বাংলা গঠনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বিজেপি। বিজেপি বাংলার ক্ষমতায় এলে সোনার বাংলা তৈরি করা হবে। বিজেপি ২০০টিরও বেশি আসন নিয়ে সরকার গঠন করবে বলেও আশা প্রকাশ করেছেন অমিত শাহ। 

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে বৈঠক, বাংলাসহ ১২টি রাজ্যের জন্য পাঁচদফা গাইডলাইন কেন্দ্রের

আজ মুলতুবি ভোটের লড়াই, পরস্পরকে রঙিন করে তুলে সৌহার্দ্যের বার্তা রায়গঞ্জের রাজনীতি ময়দানে ...

এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে অমিত শাহ অসমের ভোট নিয়েও আশা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন তাঁদের কাছে স্পষ্ট হয়ে গেছে বিজেপি অসমে প্রথম দফায় ভোট হওয়া ৪৭টি কেন্দ্রের মধ্যে ৩৭টিতে জয় লাভ করবে। অন্যদিকে  ভোটমুখী কেরলের জন্য পিনারাই বিজয়ন সরকারেও একহাত নেন অমিত শাহ। সোনা চোরাচালানকাণ্ডকে হাতিয়ার করে নিশানা করেন বাম সরকারকে। তিনি বলেন, সেখানের সরকার নিজেদের দোষ ঢাকতে আর ঠিক কী কী করবে তা কেউ জানে না। কার্যত কেন্দ্রী. তদন্তকারী সংস্থার বিরুদ্ধে বিচারবিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দেওয়া কেরল সরকারকে নিশানা করেন তিনি।