নেতাজীর জন্মদিনে রাজ্য়ের 'দেশনায়ক দিবস' পালনে মমতার তীব্র নিন্দা করলেন রাজ্যপাল। মুখ্যমন্ত্রী এটা করে কেন্দ্রের বিরোধিতা করেছেন বলে টুইট করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। যদিও অনড় এবিষয়ে মমতা।

 

 

 

 

উল্লেখ্য, ২৩ জানুয়ারিকে পরাক্রম দিবস হিসেবে ঘোষণা করেছে কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় সরকারের এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে নেতাজির জন্মদিবসকে দেশনায়ক দিবস হিসেবে উদযাপন করেছেন মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়। তাঁর এই সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। ধনখড় বলেছেন, সমস্ত কিছুতে বিরোধিতা করা উচিত নয়। এটা যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামোর পরিপন্থী। প্রসঙ্গত, পরাক্রম দিবস নিয়ে আগেই ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এবার তাতে শিলমহর পড়ল।  চলতি বছর থেকে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর জন্মদিন অর্থাৎ ২৩ জানুয়ারিতে পালিত হবে পরাক্রম দিবস।স্বাধীনতা সংগ্রামী নেতাজে এভাবেই শ্রদ্ধ জানান ও স্মরণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। 

 

 

 


যদিও শনিবার শ্য়ামবাজার ৫ মাথার মোড়ে নেতাজীর জন্মদিন উপলক্ষে বর্ণাঢ্য় অনুষ্ঠানে গিয়ে সাফ জানালেন , 'নেতাজিকে দেশনায়ক বলেছেন রবীন্দ্রনাথ।' যদিও রাজ্যপালের বিরোধিতা নতুন করে কিছু প্রতিক্রিয়া জানান তিনি। নেতাজির প্রতিকৃতিতে মালা পরিয়ে শাঁখ বাজিয়ে জন্মদিন উদযাপন করেন মমতা। তিনি বলেন, 'দয়া ভিক্ষার উপর নির্ভর করেন না নেতাজি'