তপন দাস, প্রতিনিধি- সদ্য তৃণমূল কংগ্রেস থেকে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন প্রয়াত সিএবি কর্ণধার জগমোহন ডালমিয়ার কন্যা বৈশালী ডালমিয়া। তিনি হাওড়ার বালি বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী হয়েছেন। নির্বাচন কমিশনে তিনি নিজের সম্পত্তির যে হিসেব দিয়েছেন, তা চোখ ধাঁধিয়ে দেবার মত। 

বৈশালীর স্থাবর সম্পত্তির পরিমাণের মোট অর্থমূল্য ২ কোটি ১৯ লক্ষ ৩০ হাজার ৯৫৫ টাকা। এর মধ্যে নগদ অর্থ সাড়ে তিন লক্ষের কিছু বেশি। বিভিন্ন ব্যাঙ্ক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে তাঁর গচ্ছিত অর্থের পরিমাণ ১ কোটি ১৬ লক্ষ ৩৩ হাজার ২২৯ টাকা। বন্ড, ডিবেঞ্চার ও বিভিন্ন সংস্থায় শেয়ারের মোট অর্থমূল্য ২ লক্ষ ৬৬ হাজার টাকা। বৈশালী ডালমিয়া তাঁর হলফনামায় জানিয়েছেন, তাঁর কোনও গহনা নেই। তবে তাঁর একটি মার্সিডিজ বেঞ্জ গাড়ি রয়েছে, ২০১৫ সালের, যার দাম ৩৯ লক্ষ টাকা। 

আরও পড়ুন- রাত পোহালেই তৃতীয় দফা - ভোটের সেরা লড়াই অপেক্ষা করে আছে এই ৫ আসনে, দেখুন

অস্থাবর সম্পত্তির যে হিসেব জগমোহন ডালমিয়ার কন্যা দিয়েছেন, তাতে দেখা যাচ্ছে তাঁর কোনও জমি নেই, সে কৃষিজমিই হোক, বা অকৃষি জমি। হাওড়ার বালির রামনবমীতলায় তাঁর একটি দোতলা বাড়ি রয়েছে, যার মোট আয়তন ১৬৫১ বর্গফুট। এ বাড়ি তিনি কবে কিনেছেন তার হিসেব দেওয়া নেই, তবে এর দাম পড়েছিল ৫৫ লক্ষ টাকা। এখনও ওই বাড়ির বাজারমূল্য ৫৫ লক্ষ টাকা বলে দেখিয়েছেন তিনি। 

বৈশালী জানাচ্ছেন, তাঁর মোট ঋণ ও দায়ের পরিমাণ এক কোটি টাকার বেশি। এর মধ্যে এইচডিএফসি হাউজিং লোনের পরিমাণ ৪৯ লক্ষ টাকা। এ ছাড়া বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংস্থার কাছেও তাঁর ঋণ ও দায় রয়েছে। সব মিলিয়ে দায়ের পরিমাণ ১ কোটি ৮ লক্ষ ৪০ হাজার ৭৪৫ টাকা বলে জানিয়েছেন তিনি। 

আরও পড়ুন- নিজের আখের গোছাতে সিঙ্গুরকে ব্যবহার, মমতা-র দিকে আঙুল তুললেন লকেট 

 

শেষ আর্থিক বর্ষে তাঁর আয়ের পরিমাণ ছিল ৩৭ লক্ষ ৭১ হাজার ৫৫০ টাকা।  
 
২০১৬ সালের ভোটে, যেবার তিনি তৃণমূলের হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন, সেবা তাঁর দেওয়া হলফনামা অনুসারে তাঁর স্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ ছিল ১.১৭ কোটি টাকা। সেবার তাঁর কোনও অস্থাবর সম্পত্তি ছিল না তখন।