বিধানসভা নির্বাচনকে টার্গেট করে রাজ্যে কোমড় বেধে ময়দানে নেমে পড়েছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস ও প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি। জনসংযোগ কর্মসূচি থেকে আন্দোলনে নামার ক্ষেত্রে একাধিক পদক্ষেপ নিচ্ছে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারে থাকা দুই দল। তবে লড়াইতে এবার পিছিয়ে থাকতে নারাজ বামোরাও। তাই তারাও এবার নির্বাচনের আগে লড়াইয়ের ময়দানে নামতে চলেছে। আর নতুন বছরে আরও একবার নবান্ন অভিযানের ডাক দিল বামেদের ছাত্র সংগঠন।

বামেদের তরফে জানানো হেয়ছে, ১১ ফেব্রুয়ারী বামপন্থী সকল ছাত্র সংগঠনের ডাকে নবান্ন অভিযান ডাক দেওয়া হয়েছে। মূলত সরকার পরিবর্তনের ডাক দিয়েই রাজ্য সরকারের প্রসনিক কার্যালয়কেই টার্গেট করেছে বামেরা। কাজের সরকার চাই ও শিক্ষার সরকার চাই মূলত এই দাবিতেই নবান্ন অভিমুখে যাবে বামেদের ছাত্র-যুবরা। রাজনৈতিক মহলের মতে, রাজ্যে বেকারত্ব সমস্যাকে হাতিয়ার করা ও যুব সমাজকে বেশি করে বামেদের প্রতি আকৃষ্ট করতেই এই কর্মসূচি বামপন্থী ছাত্র সংগঠনের।

তবে শুধু নবান্ন অভিযানই নয়, জনসংযোগ বাড়ানোর কর্মসূচিও নির্বাচনের আগে নেওয়া হয়েছে বামেদের তরফে। । সিপিমের শ্রমিক সংগঠনের ব্যানারে শুরু করছে, 'বাড়ি বাড়ি যাও, জনসংযোগ বাড়াও' কর্মসূচি। ৩ জানুয়ারি কলকাতা পুরসভার ৭৫ ও ৭৬ নম্বর ওয়ার্ড থেকে থেকে এই কর্মসূচি শুরু হবে। এই কর্মসূচির প্রথম পর্ব চলবে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত। তারপর ঘোষণা হবে পরবর্তী রূপরেখা।  দেশে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি সহ বেকারদের যন্ত্রণার কথা তাঁরা তুলে ধরবেন। সাধারণ মানুষের কথা, কেন্দ্রের বঞ্চনার কথা তুলে ধরা হবে। পাশাপাশি রাজ্য পরিচালনায় তৃণমূল সরকার ব্যর্থতার কথাও তুলে ধরে হবে। তরুণ প্রজন্মকে সামনে রেখে প্রচার করা হবে।