হেসস্টিংসের বিজেপি কার্যালয় থেকে দলের প্রধান সরাসরি নিশানা করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তিনি বলেন আমফান দুর্যোগের পর ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য আর্থিক সাহায্য পাঠান হয়েছিল দিল্লি থেকে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী টাকা পাঠায়েছিলেন। কিন্তু সেই টাকা ক্ষতিগ্রস্তদের কাছে পৌঁছায়নি বলেও অভিযোগ তুলেছেন জেপি নাড্ডা। আমফান ইস্যুতে রাজ্য সরকারের কোর্টে যাওয়ার বিষয়টিকেও রীতিমত কটাক্ষ করেন তিনি। একই সঙ্গে জেপি নাড্ডা বলেন করোনাকালেও কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যবাসীর জন্য রেশন পাঠিয়ে ছিল। কিন্তু সেই রেশন উদ্ধার হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাদের বাড়ি থেকে। কেন্দ্রীয় সাহায্য সরাসরি রাজ্যবাসীর কাছে পৌঁছাচ্ছে না বলেও রাজ্যের তৃণমূল সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন তিনি। 

বুড়ো হাড়ে কি ম্যাজিক দেখাতে পারবেন অশোক ভট্টাচার্য, বিজেপি ও তৃণমূলের নজর রয়েছে শিলিগুড়িতে ...

তোলাবাজি ও কাটমানি মুক্ত বাংলা গড়াই বিজেপির লক্ষ্য, 'লক্ষ্য সোনার বাংলা' কর্মসূচি সূচনা করে বার্তা ...

জেপি নাড্ডা অভিযোগ করে বলেন স্বাধীনতার দীর্ঘ দিন পরেও এই রাজ্যের বাসিন্দাদের মৌলিক অধিকারের জন্য লড়াই চালিয়ে যেতে হচ্ছে। চা শ্রমিক, কৃষক সহ রাজ্য়ের প্রতিটি স্তরের মানুষদের নিয়েই উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি। একই সঙ্গে তিনি বাংলায় বলেন 'এত ডর কেন দিদি?' তারপরই তিনি বলেন রাজ্য সরকার কেন্দ্র থেকে পঠানা টাকার হিসেব দিতে চায় না। পাশাপাশি স্বাস্থ্য সংক্রান্ত রিপোর্ট পাঠাতেও মুখ্যমন্ত্রী অসন্তুষ্ট হয়েছেন বলেও অভিযোগ তোলেন তিনি। আর সেই সময় তিনি বলেন তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রী থাকাকালীন কেন্দ্র ডেঙ্গুর রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছিলেন। কিন্তু সেই রিপোর্ট পাঠাতে গররাজি ছিল রাজ্য।   

রাজ্যে ভোট প্রচারে তৃণমূল কংগ্রেসকে টক্কর দিয়ে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা লক্ষ্য সোনার বাংলা কর্মসূচি সূচনা করলেন। এই নতুন কর্মসূচির জন্য রাজ্যের উন্নয়নে স্থানীয় বাসিন্দাদের পরামর্শ নেওয়া হবে। গোটা রাজ্যেই এই কর্মসূচি চলবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। রাজ্যের ২৯৪টি কেন্দ্রে প্রায় ৩০ হাজার পরামর্শ বক্স রাখা হবে। সেখানে রাজ্যের উন্নয়নের জন্য নিজের মতামত দিতে পারেবেন স্থানীয় বাসিন্দারা। বৃহস্পতিবার জেপি নাড্ডা  স্পষ্ট করে জানিয়েছেন এই রাজ্যের সার্বাক উন্নয়নই লক্ষ্য বিজেপির। তিনি আরও বলেন, কাটমানি, তোলাবাজি মাওবাদী মুক্ত বাংলা দখলই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উদ্দেশ্য। এই রাাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় এলে বিকাশ সকলের কাছে পৌঁছে যাবে বলেও বার্তা দিয়েছেন তিনি।