নন্দীগ্রামের শহীদ দিবসে টুইট বার্তা মমতার। একে সামনেই একুশের ভোট। ভোটের প্রাক্কালে তাই  এই শহীদ দিবসে দু দলের রাজনৈতিক পারদ চড়ছে। ভাংগাবেড়াতে শহীদ মিনারে সকালে শহীদের শ্রদ্ধা জানানোর কথা বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারীর। ঠিক তার কিছু দূরেই তৃণমূলের পক্ষ থেকে শহীদ স্মরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে ঠিক একই সময়। এদিকে তৃণমূলের কর্মী সমর্থকরা শহীদ মিনারের কাছে বিক্ষোভ দেখিয়েছে। আর এই নন্দীগ্রাম দিবসে টুইট করে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।

 

আরও পড়ুন, আজ হুইলচেয়ারেই রাজপথে মমতা, ওদিকে ফের পিছিয়ে গেল তৃণমূলের ইস্তাহার প্রকাশ  

 

 


 

'নন্দীগ্রামের শহীদদের সকলকে শ্রদ্ধা জানাই'-মমতা


নন্দীগ্রামের শহীদ দিবসে টুইট করে মমতা জানিয়েছেন, প্রতি বছর এই দিনটিতে কৃষাণ দিবস হিসেবে আমরা পালন করি। কৃষাণ রত্ন পুরষ্কারও দেওয়া হয় আমাদের পক্ষ থেকে। কৃষকরা আমাদের গর্ব। তাঁদের উন্নয়নের জন্যই আমরা কাজ করছি। আমার ভাই-বোনেদের উৎসাহে, সেখানের মানুষের শ্রদ্ধা জানাতেই নন্দীগ্রাম থেকে আমি লড়াই এর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আগামী দিনে নন্দীগ্রামের শহিদ পরিবারগুলিকে সঙ্গে নিয়েই বাংলা বিরোধী শক্তির সঙ্গে লড়বো। ২০০৭ এর আজকের দিনে নন্দীগ্রামে পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েচিলেন নিহত গ্রামবাসীরা। অনেকের লাশ পাওয়া যায়নি সেদিন। রাজ্য়ের ইতিহাসের একটি অন্ধকার অধ্যায় ছিল সেইদিন। নন্দীগ্রামের মাটিতে যাঁরা সেদিন প্রাণ দিয়েছিলেন তাঁদের সকলকে শ্রদ্ধা জানাই। '

 

আরও পড়ুন, ভোট ঘোষণার পর আজ প্রথম রাজ্যে আসছেন অমিত শাহ, দেখুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ২ দিনের সফরসূচি 

 

 

 

 

'হামলা নয়,  দুর্ঘটনাতেই আহত মমতা'-কমিশনে রিপোর্ট পর্যবেক্ষকের

 

এদিকে এই নন্দীগ্রাম থেকেই প্রার্থী হওয়ার পর মনোনয়ন জমা দিয়ে ফিরেই আহত হন মমতা। তৃণমূল মুখ্যমন্ত্রীর উপর পরিকল্পিতভাবে হামলার অভিযোগ এনে কমিশনে চিঠি দেয়। এরপরেই মুখ্যসচিবের চিঠি পেয়ে সন্তুষ্ট না হওয়ায়, আবার চিঠি চেয়ে পাঠায় কমিশন। পাশাপাশি এই ঘটনার পরে মেদিনীপুরে বিশেষ ২ পর্যবেক্ষক পাঠায় কমিশন। তবে যাবতীয় ঘটনা খতিয়ে দেখার পর, পরিকল্পিত হামলা নয়, নন্দীগ্রামে দুর্ঘটনাতেই আহত মুখ্যমন্ত্রী বলে এই রিপোর্ট কমিশনে পাঠিয়েছে ওই ২ পর্যবেক্ষক। স্বভাবতই এমন পরিস্থিতিতে সরগরম রাজ-রাজনীতি।