করোনা আবহে স্থগিত হয়েছে পুর ভোট। সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দিলেও একুশের নির্বাচনের আগে কলকাতা পুরসভা ভোট করতে চায় না রাজ্য সরকার। যদিও এনিয়ে দ্বিমত রয়েছে শাসকদলেরই অন্দরে। এক্ষেত্রে বর্তমান প্রশাসকমন্ডলীর বদলে শীর্ষ আদালতের আগেই রাজ্যের তরফে 'স্পেশ্যাল ইনডিপেন্ডেন্ট অফিসার' নিয়োগের ভাবনায় নবান্ন। 

 

 

প্রসঙ্গত, সুপ্রিম কোর্টের ৩ জন বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ সাতদিনের মধ্যে রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে ভোটের নির্ঘন্ট জানাতে নির্দেশ দিয়েছে। শাসকদলের একটা বড় অংশই শহরে এখনই পুরভোটের পক্ষে। কিন্তু প্রশান্ত কিশোর সহ একাধিক প্রভাবশালি বিধায়ক বিধানসভার আগে পুরনির্বাচনের বিরুদ্ধে। ফিরহাদ জানিয়েছে, এখন ভোট হলেও ১৪৪ টি ওয়ার্ডের মধ্যে  ১০০ এর বেশি আসনে জিতবে তৃণমূল। এটা বিধানসভা নির্বাচনের শাসকদলের জন্য খুবই হিতকর।'

 

 


 উল্লেখ্য, ১৭ ডিসেম্বর শীর্ষ আদালতের ডিভিশন বেঞ্চ পুরভোটের নির্ঘন্ট জানাতে নির্দেশ দিয়েছে। তার আগেই এই প্রক্রিয়া শুরু হবে। এবিষয়ে আইন দফতরের মতামত নেওয়া হচ্ছে। এবিষয়ে পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেছেন, করোনা সংক্রমণের সর্বশেষ পরিস্থিতির সঙ্গে ভোটার তালিকা সংশোধন চলতি কর্মসূচী, দুটি বিষয়ই রাজ্য নির্বাচন কমিশন এবং সুপ্রিম কোর্টকে জানানো হবে। '