বিধানসভা ভোটের আগে ফের রাজ্যে উদ্ধার বিপূল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্র ও আগ্নেয়াস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম। ঘটনায় গ্রেফতার এক ব্যক্তি। শনিবার এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় মুর্শিদাবাদের ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের চাঁদপুর এলাকায়। ঘটনায় ধৃত ব্যক্তি বিহারের মুঙ্গেরের বাসিন্দা। ধৃতের নাম টেম্পু মণ্ডল। ধৃতের কাছ থেকে উদ্ধার হয়  একটি পিস্তল, ১৫০ টি গুলি, দু’প্যাকেট সাদা রঙের গান পাউডার ও উন্নত মানের ১০ কেজি বিস্ফোরক। ভোটের আগে এই ঘটনায় স্বাভাবিকবভাবেই চিন্তা বেড়েছে নির্বাচন কমিশন ও স্থানীয় প্রশাসনের কর্তা ব্যক্তিদের।

জানা গিয়েছে, রাজ্য পুলিসের এসটিএফ টিমের কাছে গোপন খবর এসে পৌঁছায় মুঙ্গের থেকে মুর্শিদাবাদ ঝাড়খন্ড বর্ডার হয়ে বিপুল পরিমাণে বিস্ফোরক আগ্নেয়াস্ত্র ঢুকতে চলেছে। সেইমতো তড়িঘড়ি ব্লুপ্রিন্ট বানিয়ে চাঁদপুর ব্রিজের কাছে নাকা চেকিং শুরু করে পুলিস ও স্পেশাল টাস্কফোর্স উভয়। সঙ্গে ছিলেন এসটিএফের উচ্চ অফিসাররাও। কিছুক্ষণের মধ্যেই ওই অস্ত্র ব্যবসায়ী ডাকবাংলো পাকুর রোডের কাছে এসে হাজির হলেই তাকে বমাল গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃতের বিরুদ্ধে 'এক্সপ্লোসিভ সাবস্টেন্স ' ও 'আর্মস অ্যাক্টে' আলাদাভাবে  মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জঙ্গিপুর পুলিশ জেলার সুপার ওয়াই রঘুবংশী বলেন,'এখনই কিছু বলা সম্ভব নয় পুরোপুরি ওই অস্ত্র কারবারিকে পুলিস হেফাজতে নিয়ে এসটিএফ ও জেলা পুলিশ যৌথভাবে জেরা করে তথ্য মেলার পরি বাকিটা বলা সম্ভব হবে। এই ব়্যাকেটের সঙ্গে আরও কারা যুক্ত রয়েছে তার খোঁজ চলছে।' আসন্ন বিধানসভা নির্বাচন অন্যান্য বারের তুলনায় অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ ও লড়াই আরও জমজমাট হতে চলেছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতিতে এবার বাড়তি নজর রাখছে নির্বাচন কমিশন। রাজনৈতিকভাবে খানিকটা উত্তপ্ত মুর্শিদাবাদের রাজনীতি। সুষ্ঠু, অবাধ নির্বাচন সম্পন্ন করা কমিশনের কাছে চ্যালেঞ্জ সত্যিই।