ডায়মন্ড হারবারের সভা থেকে শুভেন্দুকে কড়া জবাব দিয়েছিলেন অভিষেক। তাঁর দলত্য়াগ নিয়ে তিনি বলেছিলেন, নিজের ঘরে পদ্মফুল ফোটাতে পারেননি কেন? প্রশ্ন তুলেছিলেন অভিষেক। তার জবাব খড়দহের জনসভা থেকে ফিরিয়ে দিলেন শুভেন্দু অধিকারী। খড়দহের সভা থেকে অভিষেককে তীব্র আক্রমণ করেন তিনি। 

আরও পড়ুন-তৃণমূল কর্মী খুনে অগ্নিগর্ভ এলাকায়, বাইক-বাসে ভাঙচুর, পরিস্থিতি সামাল দিতে নামল বাহিনী

শুভেন্দু বলেন,'' ভাইপো বলছে লজ্জা করে না, বাড়িতে পদ্ম ফোটাতে পারিনি। আমার বাড়ির লোকেরা পদ্ম ফোটাবে হরিশ চ্যাটার্জী স্ট্রিটের বাড়িতে ঢুকে পদ্ম ফোটাবো। সব গাড়িতে মণ্ডল মার্কা ছাপ। কয়লা-গরু পাচার। অমিত শাহ সব টাইট করে দিয়েছেন। অমিতচজি বলে গিয়েছেন এবার ২০০ পার হবে। বুয়া ভাতিজাকে হারাতে মাঠে নেমেছি। পিসি ভাইপোর সরকার আর ফিরবে না''। খড়দহের জনসভা থেকে তোপ শুভেন্দুর।

আরও পড়ুন-'বর্গি হানা দেবে বাংলায়, দস্যু হানা দেবে', বোলপুর থেকে বাংলা-কে বাঁচানোর আর্জি মমতার

তিনি আরও বলেন, ''চাকরি নেই। এসএসএসি টেট পাশ করেও চাকরি নেই। গোটা বাংলাকে একেবারে রসাতলে নিয়ে গিয়েছে তৃণমূল। মানুষ পরিবর্তনের আরেকটা পরিবর্তন চাইছে। কেন্দ্রের কৃষক সম্মান বাংলায় পায় না কেন? সাড়ে ৯ বছর পরে মনে পডে়ছে। যমের দুয়ারে সরকার। পাড়ায় পাড়ায় সমাধা। ভাওতাবাজির নতুন নাম''। কটাক্ষ শুভেন্দু অধিকারীর।