অধিকারীদের জবাব দিতে সোমবার নন্দীগ্রামের সভা থেকে শুভেন্দুকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। নিজেকে ওই বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী ঘোষণা করেছিলেন। তারই পাল্টা মমতাকেই চ্যালেঞ্জ করলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। ''মুখ্যমন্ত্রী শুধু নন্দীগ্রামেই দাঁড়াবেন। ভবানীপুরে দাঁড়ালে চলবে না। আমরা হতে দেব না। আপনাকে নন্দীগ্রাম থেকেই দাঁড়াতে হবে''। মমতাকে পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। 

আরও পড়ুন-শুভেন্দুর সভার আগেই উত্তপ্ত খেজুরি, বিজেপির উপর হামলার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

মঙ্গলবার পূর্ব মেদিনীপুরের হেঁড়িয়ায় সভা করেছিলেন শুভেন্দু। তাঁর সভা শুরুর আগেই বিজেপির নেতা কর্মীদের উপর হামলার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। সভামঞ্চে উঠেই বক্তব্যের শুরুতেই মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করেন শুভেন্দু। পুলিশের ভূমিকা নিয়েও তীব্র সমালোচনা করেন। তারপরই মমতার সভায় ভিড় নিয়ে তীব্র কটাক্ষ করেন শুভেন্দু। তিনি বলেন, ''আপনারা জানেন কালকের সভা কারা এসেছিল। ওরা হায়দ্রাবাদের দল আসাদউদ্দিন ওয়েসির দলের লোকেরা এসেছিল। নন্দীগ্রামে ৬২ হাজার লোকের সমর্থনে আড়াই লক্ষ মানুষের সঙ্গে লড়াই করবেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজনৈতিক হতাশাগ্রস্ত মুখ্যমন্ত্রী। পাঁচ বছর পরে নন্দীগ্রামের কথা মনে পড়েছে মমতার। এতদিন নাকি তাঁর আত্মা ছিল নন্দীগ্রামে। আর তিনি ছিলেন কলকাতায়''। মমতাকে কটাক্ষ শুভেন্দুর।

আরও পড়ুন-'বিজেপি ভোটের আগে টাকা দেবে, মাংস-ভাত খেয়ে নিও' পুরুলিয়ার জনগণকে পরামর্শ মমতার

এরপরই নন্দীগ্রামে তৃণমূল নেত্রীর প্রার্থী হওয়া প্রসঙ্গে চ্যালেঞ্চ ছুঁড়ে দেন শুভেন্দু। তিনি বলেন, ''আপনাকে এক জায়গায় দাঁড়াতে হবে। নন্দীগ্রামেই দাঁড়াতে হবে। দু জায়গায় দাঁড়ালে চলবে না। আপনি কার ভরসায় দাঁড়াবেন বলছেন। ৬২ হাজারের ভরসায়। বিজেপি জিতবে দু লক্ষের ১৩ হাজারের ভরসায়। জিতব আমরা। মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় হারবে''। অন্যদিকে, বিজেপির উপর হামলার ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করেছেন শুভেন্দু। আগামী সোমবার তমলুক এসপি অফিসে ধর্নায় বসার হুমকি দিয়েছেন শুভেন্দু।