নির্বাচন দিনক্ষণ চলে এলেও টিকিটি পাওয়া নিয়ে সমস্যা থেকে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের। এবার সমস্যা মুর্শিদাবাদে। জেলার  জলঙ্গি বিধানসভা কেন্দ্রে সিপিএম ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়া বিধায়ক তথা এবারের তৃণমূল প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে সরাসরি যুদ্ধ ঘোষণা দলেরই একাংশের। তৃণমূল প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্দল হিসেবে ওই কেন্দ্র থেকে ভোটে দাঁড়ানোর কথা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়ে দিলেন  খোদ তৃণমূলের জেলা পরিষদের সদস্য তথা এলাকার দাপুটে নেত্রী সৈয়দ রাফিকা সুলতানা। 

তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রার্থি তালিকা ঘোষণার পর থেকে ক্ষোভ ছিল দলীয় কর্মীদের মধ্যে। বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করে দলের নেতাকর্মীরা রাস্তা অবরোধ থেকে শুরু করে কুশপুত্তলিকা পুড়িয়ে বিক্ষোভও দেখিয়েছিল। তবে এবার তৃণমূল প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্দল প্রার্থী ঘোষণা করে দলকে বড় সড় ধাক্কা দিল তৃণমূলের একাংশ। রাফিকা সুলতানাকে সমর্থন জানিয়েছেন প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাকের  বিরোধী গোষ্ঠীর নেতা-কর্মীরা। দলেরই একটা বড় অংশের সমর্থন পেয়ে নিজের জয়ের বিষয়ে একশো শতাংশ আত্মবিশ্বাসী নির্দল প্রার্থী।

ঘটনার সমালোচনা করেছেন তৃণমূল প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক। তিনি বলেন,রাফিকা  বিরোধীদের কথা অনুযায়ী  ভুল পথে চলে গিয়ে এই কাজ করেছে। রাফিকা চলে যাওয়ায় দল বাঁচল। তিনি দলের কোনও কাজই করতেন না। আগামিদিনে নির্বাচনে কোন সমস্যা হবে না। রাফিকা নির্দল হিসেবে লড়াই করলে আমাদের দল আগামী দিনে আরও শক্তিশালী হবে।' এই বিষয়ে মুর্শিদাবাদের তৃণমূল সাংসদ তথা মুর্শিদাবাদ জেলার সভাপতি আবু তাহের খান জানান,'এখনও অনেক কিছু বাকি রয়েছে। সব ঠিক হয়ে যাবে। খেলা বাকি আছে'। যদিও এই ঘটনা শাসক দলের অস্বস্তি বাড়াল বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।