বসিরহাট মহাকুমার সন্দেশখালির তৃণমূলের বিধায়ক সুকুমার মাহাতোর দেয়াল লিখনের ছবি ধরা পরল। শুক্রবার বিকেল বেলা ভোটের দিনক্ষণ চূড়ান্ত হতেই রং-তুলি নিয়ে নেমে পড়লেন স্বয়ং বিধায়ক অবজারভার জেলা পরিষদের তৃণমূলের সদস্যরা।

আরও পড়ুন, বিজেপির পরিবর্তন যাত্রার রথ ভাঙচুর মানিকতলায়, কাঠগড়ায় তৃণমূল, দেখুন ভিডিও 

 বয়ারমারি এলাকায় দেওয়ালের লম্বা লম্বা করে প্রার্থীর নাম তৃণমূলের প্রতীক মমতা বন্দোপাধ্যায়ের দিকে দিকে ভোট দিয়ে পুনরায় নির্বাচন করা ছবি ধরা পরল দেওয়ালে। একদিকে যেমন বিধায়ক সুকুমার মাহাতো, অন্যদিকে সন্দেশখালির অবজারভার শেখ শাহাজান উত্তর ২৪ পরগনা জেলা পরিষদের সদস্য শিবপ্রসাদ হাজরা সহ স্থানীয় নেতা-কর্মী সমর্থকরা পথে নেমে পড়েছে। এদিন বাসন্তী হাইওয়ে ও ধামাখালি রোডে ধারে কর্মীসমর্থকরা নেমে পরলেন। একদিকে যেমন সংকল্প নিলেন নির্বাচনে জেতা অন্যদিকে সবার আগেই তৃণমূল নেতৃত্বে দেয়াল লিখন এগিয়ে আসলেন। একুশের নির্বাচনে যে সমানে সমানে টক্কর যে শনিবারই দেয়াল লিখনের মধ্য দিয়ে ফুটে উঠল।

আরও পড়ুন, কোকেন কাণ্ডে ৩ রাজ্য়ে তল্লাশি চালাল পুলিশ, ওদিকে হুমকি পেয়ে মামলা থেকে সরছেন পামেলার আইনজীবী 

 

তবে উলটপূরাণ দেখা গিয়েছে  পূর্ব মেদিনীপুরে।   ভোটের প্রার্থী ঘোষনার আগেই তৃণমূলের বিধায়কের নামে দেওয়াল লিখনে কটাক্ষ গেরুয়া শিবিরের। আসন্ন বিধানসভা ভোটের  প্রার্থী ঘোষনার আগেই পূর্ব মেদিনীপুরের নন্দকুমারের তৃণমূলের  বর্তমান বিধায়ক সুকুমার দের নামে  দেওয়াল লিখন।বিধায়কের সাফাই তিনি বিষয়টি জানেন না। তিনি বলেছেন, 'খোঁজ নিয়ে দেখবেন কে বা কারা এই কাজ করেছে।' এই নিয়ে কটাক্ষ গেরুয়া শিবিরের। বিজেপির তরফে তৃণমূলকে তোপ, 'দলের মুখ্যমন্ত্রী নন্দীগ্রামে নিজের নাম প্রার্থী হিসেবে ঘোষনা করে বুঝিয়ে দিয়েছেন দলের কোনো গণতন্ত্র নেই,শৃঙ্খলা নেই,তাই সেই দলের বর্তমান বিধায়ক নিজেই নিজের নাম ঘোষনা করে দিয়েছেন। এই দল বিধানসভা ভোটের পর আর থাকবেনা। বাংলার মানুষ বিজেপি সরকার প্রতিষ্ঠা করবে।'