বিশ্বনাথ দাস, হাওড়া-তৃণমূলের বেসুরো ও দলত্যাগীদের চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করলেন তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্য়োপাধ্য়ায়। শুধু তাই নয়, কে কী কারনে দল ছেড়েছেন তাও জনসমক্ষে খোলসা করলেন তিনি। পাশাপাশি, তৃণমূল সরকারের আমলে রাজ্যে কর্মসংস্থানের পক্ষে সওয়াল করলেন কল্যাণ। দলত্যাগী বিজেপিতে যোগ দেওয়া নেতাদের একযোগে আক্রমণ করলেন তিনি। সরকারে মন্ত্রিত্ব লোভের কারনে তাঁরা দল ছেড়েছেন বলে দাবি করলেন কল্যাণ।

শনিবার হাওড়া লিলুয়া চকপাড়ায় এক জনসভায় বিজেপিকে তীব্র আক্রমণ করেন কল্যাণ বন্দ্য়োপাধ্য়ায়। তিনি বলেন, ''যাঁরা এ ধরনের কথাবার্তা বলছেন, তাঁরা সকলেই সুখের পাখি। দুঃখের সময় তাঁদের দেখা মেলে না। তাঁরা শুধু ক্ষমতার লোভে দল করেছেন। যে ডিপার্টমেন্টে কন্টাক্টারের সংখ্যা বেশি সেখানকার মন্ত্রিত্ব না দিলেই তাঁরা হয়েছেন বেসুরো। শেষ সময়ে এসে তাদের মনে পড়েছে রাজ্যের বিভিন্ন সমস্যার কথা। একসময় তারাও তো মন্ত্রী ছিলেন তখন কেন এই সমস্ত সমস্যাগুলো দূর করেননি''? প্রশ্ন শ্রীরামপুরের সাংসদ কল্য়াণ বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের।

তিনি আরও বলেন, ''শেষ সময়ে এসে পেছন থেকে ছুরি মারছেন দলকে। টাকার লোভ দেখিয়ে নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহ তাঁদের বলছেন নাচ মেরে বুলবুল তো পয়সা মিলেগা। আর তাঁরাও টাকার লোভে সেই বুলবুলে পরিণত হচ্ছে। একই সঙ্গে তিনি হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, এক ইঞ্চিও জমি তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে দেবে না। ২০০-র বেশি আসন নিয়ে আবারও পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতায় ফিরবে তৃণমূল কংগ্রেস''।