রাজ্য সফরে এসে অমিত শাহ রাজ্যের আর্থিক দূরাবস্থার অভিযোগ করেছিলেন। তৃণমূলের শাসনে শিক্ষা থেকে স্বাস্থ্য সবটাই তলনাতিতে ঠেকে গিয়েছে বলে দাবি করেছিলেন। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সেই দাবি ভুল বলে দাবি করলেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। শিল্প-স্বাস্থ্য-শিক্ষা বহু ক্ষেত্রেই এগিয়ে রয়েঠে বাংলা।

আরও পড়ুন-বিশ্বভারতীর শতবর্ষ অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন নরেন্দ্র মোদী, একই মঞ্চে দেখা যেতে পারে মুখ্যমন্ত্রীকেও

কেন্দ্রী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দেওয়া তথ্যকে ভুল বলে দাবি করলেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন, গত ১০ বছরে ৫৩ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে জিডিপি। পাশাপাশি, ''মাথাপিছু আয়ের নিরিখে এগিয়ে রয়েছে বাংলা। শুধু তাই নয়, কেন্দ্রীয় পরিসংখ্যান অনুযায়ী শিল্পবৃদ্ধিতে পঞ্চম স্থানে রয়েছে বাংলা। চটগুলি চালু রয়েছে। ৭ কোটি টাকার পাটের ব্যাগের বরাত দেওয়া হয়েছে''। জানালেন সৌগত রায়।

আরও পড়ুন-ভোটের আগে বাংলায় প্রধানমন্ত্রীর সফর, ফ্রেব্রুয়ারিতে রাজ্যে আসতে পারেন নরেন্দ্র মোদী

অন্যদিকে, বেকারত্ব নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দেওয়া তথ্যকে চ্যালেজ্ঞ করলেন মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। ''রাজনীতির জন্য বিজেপি সব কিছু করতে পারে। বিজেপি একটা চিটিংবাজের পার্টি। সফরে এসে রাজ্যের শিল্প সম্পর্কে ভুল তথ্য দিয়েছেন অমিত শাহ। আমরা ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে দেশে এক নম্বরে। তথ্য় যাচাই না করেই মনগড়া কথা বলেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী''। অমিত শাহকে তোপ মমতার।