নজিরবিহীন অভিযোগ দক্ষিণ কাঁথির মাজনায়। বুথের বাইরে ভোটারদের তুমুল বিক্ষোভ। যে দলের প্রার্থীকে ভোট দিচ্ছেন সেখানে ভোট পড়ছে না। তৃণমূলে ভোট দিলে ইভিএমে বিজেপিতে ভোট পড়ছে বলে অভিযোগ ভোটারদের। তৃণমূলে ভোট দেওয়ার পর ভিভিপ্যাডে বিজেপির পদ্মফুল সিম্বল আসছে বলে দাবি বিক্ষোভকারীদের। এই অভিযোগ আসার পর থেকেই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলকায়। বুথের সামনে বিক্ষোভের জেরে বন্ধ হয়ে যায় ভোট গ্রহণ।

শুধু দক্ষিণ কাঁথির মাজনা নয়, তার পাশের বুথেও একইরকম অভিযোগ উঠে এসেছে।  ইভিএমে কারচুপির ভোটারদের বিক্ষোভের জেরে ভোটদান আপাতত বন্ধ। ব্য়াপক বিক্ষোভের জেরে অশান্ত হয়ে ওঠে এলাকা। সম্পূর্ণ নতুন করে ভোট গ্রহণেরও দাবি ওঠে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সকলকে বুথের বাইরে বার করে তালা দেওয়া হয়। কেন্দ্রীয় বাহিনী ঘিরে রেখেছে বুথ। তবে নিজেদের অভিযোগ থেকে একেবারেই সরে আসতে নারাজ বিক্ষোভকারীরা। শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধেও তোপ দাগেন বিক্ষোভকারীরা।

এই অভিযোগ ঘিরে উঠেছে রাজনীতির অভিযোগও। উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এটা ঘটনা হচ্ছে বলে অভিযোগ বিজেপি নেতৃত্বের। হার নিশ্চিৎ জেনেই এমন ঘটনা ঘটানো হচ্ছে। প্রিসাইডিং অফিসার অবশ্য বলেছেন, এই অভিযোগ সঠিক নয়।  ভোটাররা ভিভিপ্যাট দেখেছেন। তা সত্ত্বেও বিক্ষোভ দেখানো হচ্ছে। ঘটনায় সরব হয়েছে তৃণণমূল নেতৃত্বও। নির্বাচন কমিশনের কাছে গিয়েও অভিযোগ জানাবে তৃণমূল। ফলে ভোটের সকাল থেকেই উত্তেজক পরিবেশ দক্ষিণ কাঁথিতে।