সংসারে যতই অভাব থাকুক না কেন, কোনও মা কি নিজের সন্তানকে বিক্রি করে দিতে পারেন! শুনতে অবাক লাগলেও এমনই ঘটনা ঘটেছে হুগলি কোন্নগরে। ঘটনাটি জানার পর থানায় খবর দেন স্থানীয় বাসিন্দারা। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই শিশুটিকে উদ্ধার করে পুলিশ। আপাতত তাকে হোম রাখা হয়েছে।

ঘরে চার সন্তান। স্বামী ছেড়ে চলে গিয়েছেন। অভাবে তাড়নায় দশ হাজার টাকায় নিজের শিশুপুত্রকেই বিক্রি করে দিল এক মহিলা! অভিযুক্ত রাখি দত্তের বক্তব্য, স্বামীর তেমন কোনও রোজগার ছিল না। তার উপর প্রতিদিন রাতে মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফিরতেন। সংসার চালাতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছিলেন সে। শেষপর্যন্ত স্বামী যখন ছেড়ে যান, তখন চার সন্তানকে নিয়ে অকুলপাথারে পড়ে রাখি। নুন আনতে পান্তা ফুরানোর সংসারে সন্তানদের একার হাতে মানুষ করবে কী! প্রতিবেশী মহিলার পরামর্শে কনিষ্ট সন্তানকে অন্যের কাছে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ওই গৃহবধূ। শুধু  তাই নয়, ওই প্রতিবেশীই রাখির সঙ্গে তাঁর পরিচিত এক মহিলার যোগাযোগ করিয়ে দেন বলে জানা গিয়েছে। সেই মহিলার কাছে দশ হাজার টাকায় শিশুটিকে বিক্রি করে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ। ঘটনাটি জানাজানি হতেই শোরগোল পড়ে যায় এলাকায়। থানায় খবর দেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

আরও পড়ুন: চার বছর আগে মৃত স্ত্রী, ছবি বুকে নিয়ে আত্মঘাতী স্বামী 

পুলিশ সূত্রে খবর, জেরায় নিজের সন্তানকে অন্যের কাছে দিয়ে দেওয়ার কথা স্বীকার করে নেয় রাখি।  তাঁর দাবি, সন্তানকে বিক্রি করেনি সে। বরং যিনি শিশুটিকে নিয়েছেন, তিনিই স্বেচ্ছায় ১০ হাজার টাকা দিয়েছেন! সল্টলেকে শিশুটির খোঁজ মেলে। ঘটনার দিন রাতেই তাকে উদ্ধার করে পুলিশ।