Asianet News BanglaAsianet News Bangla

'আসবে নতুন ভোর', গোয়া সফর নিয়ে টুইট মমতার

এই সফর নিয়ে যথেষ্ট উচ্ছ্বসিত মমতা। তা অবশ্য তাঁর টুইট থেকেই স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। এছাড়া রাজনৈতিক ভাবেও এই সফর অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ হতে চলেছে বলে অনুমান রাজনৈতিক মহলের একাংশের।

Ahead of Goa visit Mamata Banerjee urges people to join forces against divisive BJP bmm
Author
Kolkata, First Published Oct 23, 2021, 9:53 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

আয়তনের দিক থেকে কোনও তুলনাই হয় না। দেশের ক্ষুদ্রতম অঙ্গরাজ্য। কিন্তু, সেই গোয়ার (Goa) গুরুত্ব এখন সবথেকে বেশি। ২০২২ সালে সেখানে নির্বাচন রয়েছে। আর সেই ছোট্ট জায়গাটার দিকেই তাকিয়ে রয়েছে রাজনৈতিক দলগুলি (Political Party)। ওই এলাকাকে পাখির চোখ করে এগিয়ে যেতে চাইছে তারা। সেই তালিকায় রয়েছে তৃণমূলও (TMC)। বাংলায় তৃতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর এখন ত্রিপুরা (Tripura) ও অসমের (Assam) পাশাপাশি তাদের লক্ষ্য গোয়াও। ওই অঙ্গরাজ্য জয়ের লক্ষ্যে এখন ঝাঁপিয়ে পড়েছে তারা। উত্তরবঙ্গ (North Bengal) সফর শেষ করেই ২৮ অক্টোবর গোয়ায় পাড়ি দেবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। ফিরবেন ৩১ অক্টোবর। এই সফর নিয়ে শনিবার সকালেই টুইট (Tweet) করলেন তিনি। 

এই সফর নিয়ে যথেষ্ট উচ্ছ্বসিত মমতা। তা অবশ্য তাঁর টুইট থেকেই স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। এছাড়া রাজনৈতিক ভাবেও এই সফর অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ হতে চলেছে বলে অনুমান রাজনৈতিক মহলের একাংশের। টুইটারে মমতা লেখেন, "২৮ অক্টোবর প্রথমবার গোয়া সফরের জন্য আমি প্রস্তুতি নিচ্ছি। বিজেপিকে হারাতে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার জন্য সব ব্যক্তিত্ব, সংস্থা এবং রাজনৈতিক দলগুলিকে আহ্বান জানাচ্ছি। গত ১০ বছর ধরে গোয়ার মানুষকে অনেক কষ্ট করতে হয়েছে।"

 

 

আরও একটি টুইটে তিনি লেখেন, "সকলে ঐক্যবদ্ধ হলে নতুন সরকার গঠিত হবে। যা গোয়ায় এক নতুন ভোর নিয়ে আসবে। নতুন সরকার মানুষের সরকার হোক, মানুষের সমস্যা বুঝুক এটাই কাম্য।" 

আরও পড়ুন- সরকারি প্রকল্প নিয়ে সচেতন করতে অভিনব উদ্যোগ, লোকশিল্পীদের দ্বারস্থ প্রশাসন

২৮ অক্টোবর মমতা সেখানে পৌঁছানোর পর বিভিন্ন আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলের সঙ্গে জোট নিয়ে আলোচনা করতে পারেন। সূত্রের খবর, তাঁর উপস্থিতিতে কংগ্রেস সহ একাধিক রাজনৈতিক দলে নেতাদের তৃণমূলে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়াও বেশ কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বও সেখানে যোগ দিতে পারেন। ইতিমধ্যেই, গোয়ায় কাজ শুরু করে দিয়েছেন তৃণমূলের ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোর। এর আগে প্রসূণ বন্দ্যোপাধ্যায়, মনোজ তিওয়ারির মতো তৃণমূল বিধায়ক, সাংসদরা গোয়ায় গিয়েছিলেন। বেশ কিছুদিন সেখানে কাটান তাঁরা। 

আরও পড়ুন- বাংলায় সেঞ্চুরী হাঁকাল ডিজেল, কলকাতা সহ সারা দেশে দাম বাড়ল পেট্রোলের

গোয়া বিধানসভা নির্বাচনের জন্য পুরোপুরি ময়দানে নেমে পড়ছে তৃণমূল। সম্প্রতি তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন গোয়ার দু’বারের মুখ্যমন্ত্রী, AICC-র প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক লুইজিনহো ফালেইরো। আর গতকালই, তাঁকে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সহ সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। মমতার গোয়া সফরের আগেই সেখানে যাবেন সৌগত রায়। সোমবারই গোয়ায় রওনা দেবেন তিনি। আর তাঁর সঙ্গী হবেন বাবুল সুপ্রিয়। সেখানে তৃণমূলের নতুন কর্মসূচি শুরু করবেন তিনি। যে কর্মসূচির নাম 'গোয়ায় নতুন ভোর'। 

আরও পড়ুন- টিকার ডবল ডোজ নিয়েও কোভিড পজিটিভ কলকাতা পুলিশের ১৩ কর্মী, আক্রান্ত নর্থ ডিভিশনের এক আধিকারিকও

অবশ্য একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বাংলায় বিপুল ভোট পেয়ে তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় এসেছে তৃণমূল। তারপরই জানিয়ে দিয়েছিলেন যে, এবার দেশজুড়েই খেলা হবে। আর সেই লক্ষ্যেই কাজ শুরু করে দিয়েছে ঘাসফুল শিবির। অসম ও ত্রিপুরার পাশাপাশি এবার লক্ষ্য গোয়া। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios