বাঁকুড়া সফরে গিয়ে আদিবাসী বিজেপি কর্মীর বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজন করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। বাঁকুড়ার চতুরডিহি গ্রামে বৃহস্পতিবার দুপুরে মধ্যাহ্নভোজন করেন তিনি। ভাত-ডাল-ভাজা-রুটি সহ পাঁচ মেশালি সবজি দিয়ে দুপুরের খাবার সারেন অমিত শাহ। বিজেপির সেকেন্ড ইন কমান্ডের মধ্যাহ্নভোজন ঘিরে আদিবাসী পরিবারে ছিল সাজোসাজো রব।

আরও পড়ুন-'মমতার সরকারের মৃত্যু ঘণ্টা বেজে গিয়েছে', বাঁকুড়ায় দাঁড়িয়ে হুঙ্কার অমিত শাহের

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে এগারো নাগাদ বাঁকুড়ায় পৌঁছান অমিত শাহ। সেখানে বিরসা মুন্ডার মূর্তিতে মাল্যদান করেন তিনি। তারপর, রবীন্দ্র ভবনে বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে একপ্রস্থ বৈঠক করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এরপরই, সেখান থেকে দশ কিলোমিটার দূরে আদিবাসী বিজেপি কর্মী বিভিষণ হাঁসদার বাড়িতে মধ্য়াহ্নভোজন করেন অমিত শাহ।

চতুরাডিহি গ্রামে বিভিষণ হাঁসদার বাড়িতে অমিত শাহের আমন্ত্রণ ঘিরে ছিল সাজোসাজো রব। আদিবাসী ওই গ্রামে পা রাখতেই রাজকীয় অভ্যর্থনা জানানো হয় অমিত শাহকে। আদিবাসী পরম্পরা মেনে ধামসা-মাদল বাজিয়ে নৃত্যের মাধ্যমে অমিত শাহকে স্বাগত জানানো হয়। এরপর, তাঁর পা ধুইয়ে নতুন অতিথিকে স্বাগত জানান বিজেপি কর্মী বিভিষণ মাহাতো। খাবার পরিবেশন করলেন পরিবারের সদস্যরা।

বিভিষণ হাঁসদার বাড়ির বারান্দায় মাটিতে বসে মধ্যাহ্নভোজন সারেন অমিত শাহ। কাঁসার থালার উপর কাঁচা শাল পাতায় খাবার পরিবেশন করা হয়। খাবার মেনুতে ছিল ভাত-ডাল-পোস্ত, পাঁচমেশালি সবজি, বিভিন্ন ভাজা  রুটি ও চাটনি খেলেন অমিত শাহ। খাবার সময় নিজের পাশে বসালেন আদিবাসী বিজেপি কর্মী বিভিষণ হাঁসদাকে। সঙ্গে ছিলেন বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়, দিলীপ ঘোষ, সৌমিত্র খাঁ সহ অন্য়ান্য বিজেপি নেতারা।