দুদিনের রাজ্য সফরে এসে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের নিশানায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। বাঁকুড়ায় দাঁড়িয়ে শাসক দল তৃণমূলকে হুঙ্কার দেন অমিত শাহ। বাংলায় গরিবি হঠাতে মমতার সরকারকে ছুঁড়ে ফেলার পরামর্শ দিলেন। পাশাপাশি, বিজেপি ক্ষমতায় এলে বাংলায় কর্ম সংস্থানের আশ্বাস দেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

আরও পড়ুন-'উঠাকে ফেক দো'-র পাল্টা মন্তব্য তিনিও করতে পারেন, অমিত শাহকে চোখ রাঙিয়ে বার্তা মমতা-র

পাশাপাশি, বাঁকুড়া সফরে গিয়ে অমিত শাহ আরও বলেন, ''মমতার সরকারের মৃত্যু ঘণ্টা বেজে গিয়েছে। আগামী বিধানসভা নির্বাচনে দুই তৃতীয়াংশ সংখ্যা গরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় আসবে বিজেপি''। হুঙ্কার বিজেপি সেকেন্ড ইন কমান্ড অমিত শাহের। দুদিনের রাজ্য সফরে এসে বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে এগারোটা নাগাদ হেলিকপ্টারে চড়ে বাঁকুড়ায় পৌঁছন তিনি। সেখানে প্রথম বিরসা মুন্ডার মূর্তিতে মাল্যদান করেন অমিত শাহ। তারপর, সেখানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে অমিত শাহ বলেন, ''যেভাবে বিজেপি কর্মীদের উপর মমতার সরকার অত্যাচার চালাচ্ছে, তাতে আমি নিশ্চিতভাবে দেখতে পাচ্ছি, মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়ের সরকারের মৃত্যু ঘণ্টা বেজে গিয়েছে। আগামী দিনে দুই তৃতীয়াংশ সংখ্য়াগরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গড়বে বিজেপি''।

বাঁকুড়ায় দাঁড়িয়ে তিনি আরও বলেন, ''কাল রাত থেকে বাংলায় আছি, যেখানেই যাচ্ছি মানুষের মধ্যে উৎসাহ দেখতে পাচ্ছি। মমতার সরকারের বিরুদ্ধে মানুষের রাগ যেমন দেখতে পাচ্ছি, সেরকই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকারের প্রতি মানুষের আস্থা চোখে পড়ছে। নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বেই বাংলায় পরিবর্তন হবে। দারিদ্রতায় ডুবে বথাকা বাংলার মানুষের কাছে কেন্দ্রের কোনোও সাহায্য পাচ্ছে না। আদিবাসীদের ঘর তৈরির টাকা, কৃষকদের বছরে ছয় হাজার টাকা, গরিবদের জন্য পরিবার পিছু বার্ষিক পাঁচ লক্ষ টাকা স্বাস্থ্য বিমা সহ কেন্দ্রের কোনও সাহায্যেই পৌঁছতে দিচ্ছে না রাজ্য সরকার। এভাবে বাংলায় বিজেপিকে রোখা যাবে না''।

আরও পড়ুন-বিষধর সাপ পাচার চক্রে বন দপ্তরের জালে সাপুড়ে, অভিযুক্তের ঘর থেকে উদ্ধার ২টি সাপ

রাজ্য সফরে এসে ফের রাজ্যবাসীকে প্রতিশ্রুতি দিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সোনার বাংলা গড়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তিনি বলেন, ''বাংলা একটি সীমান্তবর্তী রাজ্য, বাংলার নিরাপত্তার মধ্যে দেশের আভ্য়ন্তরীন নিরাপত্তা জড়িয়ে রয়েছে। বাংলায় গরিবি দূর করতে, বেকার যুবকদের চাকরি দিতে আমাদের একবার সুযোগ দিন, আমরা সোনার বাংলা গড়ব''।