করোনার মাঝেই চলছে দূর্গাপুজো। একের পর এক প্যান্ডে শনিবার সকাল থেকেই চোখে পড়ার মত ভিড়। সকাল ৯টা থেকে শুরু হল অষ্টমী পুজোর পুষ্পাঞ্জলি। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে সকলকেই দিতে হবে পুষ্পাঞ্জলি। তাই সতর্কতা মাথায় রেখেই বেশ খানিকটা ভিড়ও চোখে পড়ছে মণ্ডপে মণ্ডপে। ১১ থেকেই আবার শুরু হবে সন্ধি পুজোর আয়োজন। তাই সকলেই হাজির হচ্ছেন বিভিন্ন মণ্ডপে। 

বেশ কিছু পুজো কমিটি একাধিক পুষ্পাঞ্জলির নিয়ম ও নির্দেশিক জারি করেছে। নিজের ফুল নিজে আনা থেকে শুরু করে নির্দিষ্ট কয়েকজন করে পুষ্পাঞ্জলি দেওয়া, গোল গোল করে দাগ করে দেওয়া, যেখানে সকলে দাঁড়াবেন, ফুল ছোঁড়া যাবে না, মাস্ক বিতরণ, স্যানিটাইজার টানেল প্রভৃতি। যা মেনেই ধীরে ধীরে মণ্ডপে বাড়ছে ভিড়। কোথাও কোথাও সপ্তমীর দিন আগেই বুক  করে নেওয়া হয়েছিল স্লট।

 

করোনার বিধি মেনেই চলছে দুর্গা পুজো। রাতের শহরে বেশ কিছু দর্শনার্থী বেড়লেও দড়ি ফেলার মত ভিড় চোখে পড়ছে না। তবে রাশ টানা যায়নি প্যান্ডেল হপিং-এ। রেস্তোরাতে স্বাভাবিক ভিড়ই নজরে এলো। বেশ খানিকক্ষণ লাইন দিয়ে তবেই মিলছে টেবিল। তবে যে যে প্যান্ডেলগুলো খোলা, তার সামনে দর্শণার্থীদের মাঝে মধ্যেই উপচে পড়ছে ভিড়। যা ফাঁকা করতে সদাই তৎপর প্রশাসন। ফলে এক মিশ্র ছবি উঠে এলো এবারর দুর্গাপুজোয়।