মুর্শিদাবাদের শনিবার বজ্রাঘাতে মৃত্যু মিছিলে প্রাণ গেল মহিলা শ্রমিক সহ ৬ জনের,আহত একাধিক। প্রথম ঘটনাটি ঘটে সাগরদিঘির বিশ্বনাথপুরে। পাশাপাশি সন্ধ্যার পরে দ্বিতীয় ঘটনাটি ঘটে ভরতপুরে। 

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, জনা দশেক শ্রমিক সবজির জমি থেকে  বিকেলের পরে কাজ সেরে বাড়ি ফিরছিলেন। সেই সময় হঠাৎ বৃষ্টি এলে বৃষ্টি থেকে বাঁচার জন্য মাঠেই একটি ডিপটিউবওয়েলের ঘরে আশ্রয় নেন জমির মালিক-সহ পাঁচজন। কিছুক্ষণ পরেই শুরু হয় মুষলধারে বৃষ্টির সঙ্গে দফায় দফায় বজ্রপাত।  ঘটনাস্থলেই মারা যান সমর মণ্ডল (৩০), ভারতী মণ্ডল (৪০) শিবরাম মাহাতো (৪৫) নামে তিন শ্রমিক। 

জখম হন জমির মালিক রাজুবালা মণ্ডল, তেতত্রী মাহাতো। তাদের  প্রথমে সাগরদীঘি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ,পরে রাতের দিকে অবস্থা সংকটজনক হলে সকলকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। অন্যদিকে জেলার আরেক প্রান্ত  ভরতপুরেও কাজ সেরে রাতে বাড়ি ফেরার পথে বজ্রাঘাতে মৃত্যু হল তিনজন গ্রামবাসীর। 

পুলিশ জানিয়েছে, মৃত তিনজনের নাম ইমতিয়াজ আলম (১৯), মতিচাঁদ আলি (৩৭)। এই দুজনের বাড়ি ভরতপুর থানার তালগ্রাম গ্রামে। অপর একজনের নাম শেফালি শেখ (৫৫)। বাড়ি ভরতপুর থানার জোড়গাছি গ্রামে। ময়নাতদন্তের জন্য কান্দি মহকুমা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বজ্রপাতের মৃত্যুর মিছিলের ঘটনা জেলাজুড়ে চাউর হতেই সর্বত্র শোকের ছায়া নেমে এসেছে।