আশিষ মণ্ডল, বীরভূম:  একজন ভর্তি হাসপাতালে, আর একজনের চিকিৎসা চলছে বাড়িতে। করোনা সংক্রমণের শিকার হলেন বিডিও ও জয়েন্ট বিডিও।  ঘটনাস্থল, বীরভূমের নলহাটি। 

আরও পড়ুন: সার্ভিস রাইফেল থেকে এলোপাথাড়ি গুলি, হঠাৎ রণংদেহি বিএসএফ জওয়ান

তখন টানা লকডাউন চলছিল। কাজ হারিয়ে দিল্লি ও মুম্বই থেকে পরিযায়ী শ্রমিকের ফিরতেই করোনা সংক্রমণ ছড়াতে শুরু করে বীরভূমে। যতদিন যাচ্ছে, পরিস্থিতি ততই খারাপ হচ্ছে। আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে নলহাটি ১ ও ২ নম্বর ব্লক এলাকায়। বস্তুত, দিন কয়েক আগে  সংক্রমিত হয়েছেন খোদ নলহাটি পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান তৈহিদ শেখও। আপাতত পুরসভার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। সোমবার থেকে পুরসভা ভবন ও লাগোয়া এলাকা জীবাণুমক্ত করার কাজ চলছে জোরকদমে। এদিকে আবার নলহাটি ২ নম্বর ব্লকের লোহাপুর প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এক চিকিৎসকেরও করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। ফলে বন্ধ হয়ে গিয়েছে স্বাস্থ্যকেন্দ্রটিও।

আরও পড়ুন: বারুইপুরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, ভষ্মীভূত শতাধিক দোকান

রেহাই পেলেন না নলহাটি ১ নম্বর ব্লকের বিডিও জগদীশ বাড়ুই ও জয়েন্ট বিডিও অরিন্দম মুখোপাধ্যায়। করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে দু'জনেরই। তাঁদের শরীরের উপসর্গও দেখা দিয়েছে। বিডিও-কে ভর্তি করা হয়েছে রামপুরহাটের কোভিড হাসপাতালে। আর এখনও পর্যন্ত বাড়িতে চিকিৎসা চলছে জয়েন্ট বিডিও-র। ব্লকের অফিসের দুই কর্মীরও আক্রান্ত হওয়ার খবর মিলেছে। সংক্রমণ রুখতে যথারীতি বন্ধ করা দেওয়া হয়েছে ব্লক অফিস।