শুধু বাংলায় ক্ষমতা দখল নয়, তৃণমূলকে দুরমুশ করে বিধানসভায় নির্বাচনে জয়লাভকেই পাখির চোখ করছে বিজেপি। সংবাদসংস্থার খবর অনুযায়ী, পশ্চিমবঙ্গে আগামী বিধানসভা নির্বাচনে অন্তত ২৫০ আসন পাওয়ার লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছে বিজেপি। তার জন্য ব্লুপ্রিন্টও তৈরি করছে তারা। 

এবারের লোকসভা নির্বাচনে বাংলা থেকে তেইশটি আসনের লক্ষ্যমাত্রা ছিল বিজেপি-র। তেইশটি আসন না পেলেও আঠারোটি আসনে জিতে তৃণমূলের চিন্তা অনেকটাই বাড়িয়ে দিয়েছে গেরুয়া বাহিনী। বিধানসভার নিরিখে, বিজেপি প্রায় ১২৮টি আসনে এগিয়ে রয়েছে। 

রাজ্যে বিজেপি-র পক্ষে যে জনসমর্থনের ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছে, তাকে হাতছাড়া করতে রাজি নয় বিজেপি রাজ্য বা কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। বরং ২৯৪ আসনের পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় আসাই বিজেপি-র লক্ষ্য। ঠিক যেভাবে ২০১৫ সালে উত্তর প্রদেশে ক্ষমতা দখল করছিল বিজেপি। 

রণকৌশলের অঙ্গ হিসেবে, রাজ্য বেশি করে শিল্পায়ন এবং কর্মসংস্থান তৈরি করার মতো ইস্যুর বিষয়গুলির উপরে জোর দিয়ে এরাজ্যে জনসমর্থন আরও বাড়ানোর চেষ্টা করবে বিজেপি। একই সঙ্গে এরাজ্যে নাগরিকত্ব আইন সংশোধনী বিল এবং এনআরসি প্রণয়নের মতো প্রতিশ্রুতিও দেবে বিজেপি। 

বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় বলেছেন, "লোকসভা নির্বাতচনে আমার তেইশ আসন টার্গেট করে আঠারোটি আসন পেয়েছি। এবার আমাদের টার্গেট ২৫০ আসন। সেভাবেই আমরা নির্বাচনী রণকৌশল তৈরি করব যাতে ওই লক্ষ্যে আমরা পৌঁছতে পারি।"

একই সঙ্গে সংগঠনকেও আরও শক্তিশালী করার পরিকল্পনা নিয়েছে বিজেপি। বিভিন্ন ক্ষেত্র থেকে মানুষকে বিজেপি-তে যোগদান করানোর পাশাপাশি আরও বেশি সংখ্যায় রাজনৈতিক কর্মীদেরও দলে নিয়ে সংগঠন মজবুত করতে চাইছে বিজেপি।