পুরুলিয়া হুড়া ব্লকের এক বিজেপি নেতাকে গ্রেফতার করল পুলিশ। ওই বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে জোর করে এক নাবালিকাকে দিয়ে কাজ করানোর অভিযোগ উঠেছে। এখানেই শেষ নয়। অভিযোগকারীদের দাবি, ওই নাবালিকাকে অপহরণ করে অত্যাচার করেছে ওই বিজেপি নেতা।

হুড়া পুলিশ জানিয়েছে, ১১ বছরের ওই নাবালিকার অভিযোগের ভিত্তিতেই সুব্রত দাস নামে ওই নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জানা গেছে, দুর্গাপুরে ওই নেতার শ্বশুরবাড়ির পাড়া থেকে একটি মেয়েকে এনে বাড়ির পরিচারিকার কাজ করাচ্ছিলেন সুব্রত। সোমবার ধৃত ওই বিজেপি নেতাকে পুরুলিয়া জেলা আদালতে হাজির করা হলে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। ওই দিন ফের পুরুলিয়া জেলা আদালতে হাজির করা হবে ধৃতকে।

এদিকে এই ঘটনাকে তৃণমূলের পরিকল্পিত চক্রান্ত বলে দাবি করেছে বিজেপি। স্থানীয় বিজেপি নেতাদের অভিযোগ, তৃণমূল নেতারাই প্রভাব খাটিয়ে সুব্রতকে গ্রেফতার করিয়েছে। বিজেপির সংখ্যালঘু সেলের জেলা সভাপতি তথা হুড়ার বাসিন্দা আবদুল আলিম আনসারির অভিযোগ,ধৃতকে টার্গেটে রেখেছিল তৃণমূল। সুযোগ বুঝে তাঁকে ফাঁসানো হল।