কয়েক লক্ষ টাকা নিয়ে বৃহস্পতিবার বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন। তার পর থেকেই নিখোঁজ দুর্গাপুরের এক ব্যবসায়ী। রহস্য বাড়িয়ে এ দিন সকালে দুর্গাপুরের সিটি সেন্টার লাগোয়া একটি মাঠ থেকে উদ্ধার হয়েছে ব্যবসায়ীর একটি গাড়ি। নিখোঁজ ওই ব্যবসায়ীর নাম শরাফত আলি। পরিবারের সন্দেহ, ওই ব্যবসায়ীকে অপহরণ করা হয়েছে। 

নিখোঁজ ব্য়বসায়ী শরাফত আলি বীরভূমের সাঁইথিয়ার বাসিন্দা।কর্মসূত্রে তিনি স্ত্রী সন্তানদের ছেড়ে প্রায় ১০ বছর ধরে দুর্গাপুরে রয়েছেন। বাঁকুড়ায় তাঁর হোটেল ও রেস্তোরাঁর ব্যবসা রয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শরাফত আলি ব্যবসা ছাড়াও এলাকায় বাড়ি ভাড়া ঠিক করে দেওয়ার কাজ করতেন। তবে এলাকায় তিনি বিভিন্ন নামে পরিচিত। বিভিন্ন জায়গায় আলাদা আলাদা নাম ব্যবহার করতেন শরাফত। কেন তিনি এ ভাবে পরিচয় বদলাতেন, তা নিয়ে সংশয়ে তদন্তকারীরাও। 

শরাফত আলির দুঃসম্পর্কের ভাই বাপি শেখ জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার রাতে ব্যবসার কাজে যাচ্ছেন বলে কয়েক লক্ষ টাকা নিয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান শরাফত। ঘটনার দিন রাত এগারোটা থেকে তাঁর মোবাইল ফোনও বন্ধ রয়েছে। ব্যবসায়ীর সঙ্গে যোগাযোগ করতে না পেরে শেষ পর্যন্ত পুলিশের দ্বারস্থ হয় তাঁর পরিবার। 

আরও পড়ুন- দু' লাখ টাকার বাইকের আব্দার, না পেয়ে স্ত্রীর ধড়ৃ- মাথা আলাদা করল জামাই

আরও পড়ুন- চুঁচুড়ার ডনের হাতে কার্বাইন, গ্রেফতার করে চমকে গেলেন পুলিশ কর্তারাও

তদন্তে নেমে এখনও ব্যবসায়ীর কোনও খোঁজ না পেলেও এ দিন দুর্গাপুরের সিটি সেন্টারের কাছে চতুরঙ্গ মাঠ সংলগ্ন এলাকায় ব্যবসায়ীর একটি গাড়ি উদ্ধার হয়েছে। ওই গাড়িটি এক মহিলা লিজে নিখোঁজ ব্যবসায়ীর থেকে ভাড়া নিয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন শরাফতের ভাই। গাড়ির ভিতর থেকে একপাটি চটি ও গাড়ির পিছনের সিট থেকে লণ্ডভণ্ড অবস্থায় কিছু কাগজপত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

ঘটনার তদন্তে নেমেছে দুর্গাপুর থানার পুলিশ। যদিও, পুলিশ সূত্রে খবর, ওই ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধেও প্রতারণা-সহ বেশ কিছু বেআইনি কারবার চালানোর অভিযোগ রয়েছে। ফলে, কীভাবে তিনি নিখোঁজ হলেন, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা।