বোমা-গুলির লড়াইয়ে ফের উত্তপ্ত বীরভূমের পাড়ুই। তৃণমূল এবং বিজেপি-র সংঘর্ষে পুড়িয়ে দেওয়া হল দু'টি বাড়ি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গ্রামে গ্রামে টহল দিচ্ছে বিশাল পুলিশবাহিনী। দুষ্কৃতী লক্ষ্য করে রবার বুলেটও ছুড়তে হয় পুলিশবাহিনীকে। 

স্থানীয় সূত্রে খবর, শনিবার রাত থেকেই তৃণমূল এবং বিজেপি-র সংঘর্ষ শুরু হয় পাড়ুইয়ের শিমুলিয়া গ্রামে তৃণমূল কর্মী মিলন শেখের বাড়ি আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়। পাল্টা বিজেপি কর্মী জাফর শেখের বাড়িতে আগুন লাগানো হয় বলে খবর। পরিস্থিতি সামাল দিতে রাতেই ঘটনাস্থলে যায় বিশাল পুলিশবাহিনী। গ্রামে পুলিশ গেলে তাদের লক্ষ্য করে বোমা, গুলি ছুড়তে থাকে দুষ্কৃতীরা। সকালেও গ্রামে দুষ্কৃতী দাপট কমেনি। দুষ্কৃতীদের জবাব দিতে পাল্টা রবার বুলেট ছোড়ে পুলিশ। গ্রামে গ্রামে ঢুকে তল্লাশি চালানো হয়। 

বিজেপি-র অভিযোগ, পুলিশ এবং তৃণমূলের গুন্ডাবাহিনী মিলিতভাবে গ্রামবাসীদের উপরে অত্যাচার চালিয়েছে। সংখ্য়ালঘুরাও বিজেপি-কে সমর্থন করতে শুরু করায় বিজেপি সমর্থকদের উপরে তৃণমূল হামলা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ জেলা বিজেপি নেতৃত্বের। 

অন্যদিকে তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি,সিপিএমের হার্মাদবাহিনী এখন বিজেপি-র হয়ে কাজ করছে। তাঁরাই অশান্তি ছড়ানোর উদ্দেশ্যে তৃণমূল সমর্থকদের উপরে হামলা চালিয়েছে।